সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

সিএএ-বিরোধীদের মুক্তি দিতে ভারতের প্রতি মার্কিন কমিশনের আহ্বান

মে ১৫, পার্সটুডে : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউনাইটেড স্টেটস কমিশন অন ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম’ (ইউএসসিআইআরএফ) ভারতকে সিএএ আইনের বিরোধিতাকারী বন্দীদের মুক্তি দিতে বলেছে। আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক ওই কমিশন নরেন্দ্র মোদি সরকারের উদ্দেশে বলেছে, ভারতের উচিত এই জাতীয় বন্দীদের মুক্তি দেওয়া যারা তাদের গণতান্ত্রিক অধিকারের মাধ্যমে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিল।

মার্কিন কমিশন বলেছে, ‘কোভিড ১৯ সংকট চলাকালীন এমন খবর পাওয়া গেছে যে ভারত সরকার ‘সিএএ’-এর বিরোধিতা করা মুসলিম কর্মীদের গ্রেফতার করছে যার মধ্যে গর্ভবতী সফুরা জারগারও আছেন।’

মার্কিন কমিশন বিশেষত ভারতের জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক সফুরা জারগারকে গ্রেফতারের কথা উল্লেখ করেছে। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) প্রতিবাদ করার অভিযোগে গত ১০ এপ্রিল দিল্লি পুলিশ তাকে আটক করেছিল।

গত বছরের ডিসেম্বরে যখন সিএএ আইন কার্যকর হয়, তখন মুসলিম নারীদের নেতৃত্বে দেশজুড়ে বিক্ষোভ হয়। প্রতিবাদকারীদের বক্তব্য ‘সিএএ’কে জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধনের সাথে সংযুক্ত করা হলে লাখ লাখ মুসলিম ঝুঁকির মধ্যে পড়বে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলাকালীন সহিংসতার অভিযোগে গৃহবধূ ও ছাত্রী সফুরা বর্তমানে দিল্লির তিহার জেলে বন্দি এবং গর্ভবতী। জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার এমফিল-এর ছাত্রী সফুরা জারগারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলাকালীন জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশনের কাছে অবরোধের অভিযোগ রয়েছে। সফুরাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে আনা হয়েছিল এবং তারপরেই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মার্কিন ওই কমিশন কর্তৃক গতমাসে প্রকাশিত তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে ভারতকে ২০১৯ সালের সময়ে ‘ধর্মীয় স্বাধীনতার লঙ্ঘনকারী দেশ’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। ভারতের পক্ষ থেকে অবশ্য ওই অভিযোগ নাকচ করে দেওয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ