শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

১৫০০ কোটি ডলার মূল্যের রপ্তানি আদেশ বাতিল/স্থগিত

চট্টগ্রাম ব্যুরো : বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম করোনা ভাইরাস জনিত উদ্ভুত পরিস্থিতিতে দেশের অর্থনীতির অন্যতম নিয়ামক শক্তি তৈরী পোশাক শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে পোশাক শিল্প সংক্রান্ত বিভিন্ন কার্যক্রম সহজীকরণসহ এ শিল্পের প্রতি সর্ব্বোচ্চ সহযোগীতা চেয়ে কাস্টমস্, বন্ড, পোর্ট, পিডিবি, কর্ণফুলী গ্যাস, ইপিবি, আমদানি-রপ্তানি নিয়ন্ত্রক অফিস সহ সংশ্লিষ্ট ২৮টি সরকারি দপ্তরে পত্র প্রেরণ করেছেন।
তিনি পত্রে বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস জনিত উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের তৈরী পোশাক শিল্পে চরম বিপর্যয় নেমে এসেছে, বন্ধ হচ্ছে কারখানা। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী ১,০৮৯টি পোশাক শিল্প কারখানায় ১৫০০ কোটি ডলার মূল্যেরও বেশী রপ্তানি আদেশ বাতিল/স্থগিত করেছেন ক্রেতারা, যা প্রতিদিনই বাড়ছে। তন্মধ্যে এক তৃতীয়াংশ চট্টগ্রামস্থ পোশাক শিল্পের। উল্লেখ্য, শুধু চট্টগ্রামেই বিভিন্ন পোশাক শিল্পে কর্মরত প্রায় ৪ লক্ষ শ্রমিক কর্মচারী। পোশাক শিল্পের মালিকগণ কারখানা চালু রাখা, মজুরী প্রদান সহ আনুসাঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনা নিয়ে গভীর উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন। পোশাক শিল্পের এই বিপর্যয়কর অবস্থা দীর্ঘস্থায়ী হলে তা কাটিয়ে উঠা অত্যন্ত দূরুহ হবে। এ শিল্পকে বাঁচানোর লক্ষ্যে কমপক্ষে আগামী এক বছরের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান অত্যন্ত জরুরী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ