মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

এক বছর পিছিয়ে যাচ্ছে টোকিও অলিম্পিক!

টোকিও শহরে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক প্রতিযোগিতা এক বছর পিছিয়ে দেয়ার সম্ভাবনা এখন প্রবল। রোববার আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির জরুরি বৈঠকের পর জানানো হয়েছে, যে সম্ভাব্য পরিস্থিতি অনুযায়ী পরিকল্পনা নেয়া হবে। আগামী কয়েক সপ্তাহ ধরে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হবে। আগামী ২৪ জুলাই টোকিও অলিম্পিক শুরু হবার কথা। এরই মধ্যে কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া অলিম্পিকে অংশ না নেবার সিদ্ধান্ত নিলো। কানাডা সাফ জানিয়ে দিয়েছে, যে পরিকল্পনা অনুযায়ী টোকিও অলিম্পিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলে সে দেশ অংশ নেবে না। বিশেষ করে প্যারা-অলিম্পিক অ্যাথলিটদের বাড়তি ঝুঁকির উল্ল্যেখ করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার অস্ট্রেলিয়ার অলিম্পিক কমিটি জানিয়েছে, করোনা ভাইরাসের কারণে টোকিও অলিম্পিকের জন্য কোনো টিম গঠন করা হচ্ছে না। অলিম্পিক প্রতিযোগিতা ২০২১ সাল পর্যন্ত পিছিয়ে দেয়া হবে, এমন অনুমানের ভিত্তিতে অ্যাথলিটদের প্রস্তুতির ব্যবস্থা করা হবে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির পরামর্শ আসা পর্যন্ত অপেক্ষা না করেই অ্যাথলিটদের স্বার্থ সবার উপরে রেখে এমন সিদ্ধান্ত  নিলো অস্ট্রেলিয়া।

করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে টোকিও অলিম্পিক গেমস স্থগিত করা অনিবার্য হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। এএফপির খবর থেকে জানা যায়, সোমবার  জাপানের পার্লামেন্টে তিনি একথা বলেন।

আগামী কয়েক সপ্তাহ ধরে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত  নেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির পরিকল্পনার বিষয়ে শিনজো আবে বলেন, বিশ্বে করোনা ভাইরাস যেভাবে প্রভাব ফেলছে সেক্ষেত্রে অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়া ছাড়া উপায় নেই।তিনি বলেন, 'নতুন করোনা ভাইরাসের কারণে যদি নিরাপদে গেমস আয়োজন অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়, তাহলে এটি স্থগিতের সিদ্ধান্ত  অপরিহার্য হয়ে উঠতে পারে। কারণ আমরা মনে করি অ্যাথলেটদের নিরাপত্তা সবার আগে। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ