মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে করোনা ভাইরাসের যতো প্রভাব

মাহাথির মোহাম্মদ কৌশিক : এক করোনাই সারা দুনিয়ার মানুষের ঘুম হারাম করে দিয়েছে। প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনা এখন সারা দুনিয়া জুড়েই বিরাজমান রয়েছে। উৎপত্তিস্থল চীন থেকে জন্ম হলেও এখন সেটি ইতালী, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, জার্মানিতে ছড়িয়ে পড়েছে। এরই মধ্যে মারা গেছে পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষ। প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বিশ্ব অর্থনীতি রীতিমতো টালমাটাল হয়ে পড়েছে করোনার আঘাতে। ক্রীড়াঙ্গনও বাদ যাবার কথা নয়। এই ভাইরাসে কাত হয়ে পড়েছে ক্রিকেট, ফুটবল, শুটিং, সাইক্লিংসহ অনেক খেলা। প্রায় দেড়শটিরও বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে কমছে না আতঙ্কে। বিশেষ করে জাতির জনক বঙ্গড়বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী হওয়ায় আরো অনেকগুলো আয়োজন ছিল। যার প্রায় সবগুলোই এখন স্থগিত হয়ে গেছে। চলতি বছরের ১৭ মার্চ শুরু হয়ে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত থাকবে এই আসর আয়োজনের সুযোগ। আক্রান্তের সংখ্যা এরই মধ্যে লাখ ছাড়িয়েছে। জনজীবন ক্রমেই বন্দি হয়ে পড়ছে চারদেয়ালে। মহামারি রূপ নেয়া করোনার থাবা বিশ্বের ক্রীড়াঙ্গনেও। জনপ্রিয় বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থমকে দিয়েছে এই মরণ ভাইরাস। বন্ধ হওয়ার পথে আরো কিছু ইভেন্ট। বড় হুমকিতে টোকিওতে আসন্ন অলিম্পিক গেমস। যদিও এরই মধ্যে গ্রীসের অলিম্পিয়ায় অলিম্পিকের মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে থাকেনি কোনো দর্শক। ক্রীড়াক্ষেত্রেও ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে এই ভাইরাসের। করোনাভাইরাসের জেরে এবার স্থগিত হয়ে গেল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর ইউরোপা লিগ। তিন সপ্তাহ পর্যন্ত স্থগিত করা হল ইপিএলকে। যার ফলে ৩ এপ্রিলের আগে ইপিএলের কোনও খেলা হবে না। করোনার জেরে আগেই লকডাউন হয়ে গিয়েছিল আর্সেনাল আর চেলসির মতো দলগুলো। প্রথম ইপিএল ফুটবলার হিসেবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন চেলসির ক্যালাম হাডসন ওডোই। এর আগে আর্সেনালের কোচ মিকেল আর্তেতাও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এর আগে করোনা ভাইরাসের জন্য অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয় উয়েফার যাবতীয় টুর্নামেন্ট।
যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর ইউরোপা লিগ। একের পর এক ক্রীড়া ইভেন্ট স্থগিত কিংবা বাতিল হয়ে যাচ্ছে। এরই মধ্যে অনেক ক্রীড়াবিদ ও কোচ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ক্রিকেটে সিরিজ বাতিলের পাশাপাশি সবচেয়ে বড় আর আকর্ষনীয় ফ্রাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ইউরোপের মতো করেই একটা দমবন্ধ হওয়া পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে সারা দুনিয়ার ক্রীড়াঙ্গনে। অনেক প্রত্যাশা নিয়ে প্রায় সাত বছর পর মাঠে গড়ানোর অপেক্ষা ছিল বাংলাদেশ গেমসের। পাশাপাশি জাতির জনকের বঙ্গড়বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বার্ষিকী হওয়ায় আরো অনেকগুলো আয়োজন ছিল। যদিও এর আগে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে লোগো আর মাসকট উপস্থাপন করে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (বিওএ)। ঘোষণা না দিলেও ক্রীড়ামোদীরা নিশ্চিত ছিলেন নির্ধারিত সময়ে বাংলাদেশ গেমস হবে না। শেষ পর্যন্ত তাই হলো, ১ এপ্রিল থেকে মুজিব শতবর্ষেও বাংলাদেশ গেমস স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনাভাইরাসের কারণ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলকে গেমস স্থগিতের নির্দেশনা দিয়েছেন। এই আসর নিয়ে গুঞ্জন ছিল বেশ ক’দিন ধরেই। করোনা ভাইরাসের জেরে দেশের-বিদেশে অনেক খেলাই স্থগিত ও বাতিল হতে শুরু করলে প্রশ্ন ওঠে বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমস নিয়েও। ১-১০ এপ্রিল ঢাকায় বসার কথা ছিল দেশের সর্ববৃহৎ ক্রীড়াযজ্ঞ। এরপর জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডেকে সেটি আপতত স্থগিত ঘোষণা করেছে বিওএ। সিদ্ধান্তের আগে বিওএ সভাপতি এবং মহাসচিব সাক্ষাৎ করেন প্রধানমন্ত্রী এবং আসরের প্রধান উপদেষ্টা শেখ হাসিনার সঙ্গে। বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ায় এর মধ্যেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতা দিবসের অনেক অনুষ্ঠান স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।
সে কারণে দেশের মানুষের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনায় জনসমাবেশ করা ও এড়িয়ে চলার পরামর্শ এসেছে সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে। সরকার সর্বোচ্চ সতর্কতা নিয়ে চেষ্টা করছে যাতে জীবনহানিকর ভাইরাসটি ব্যাপকহারে দেশে ছড়িয়ে পড়তে না পারে। সে ভাবনা থেকেই প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ চান বিওএ’র কর্তারা। সব শুনে প্রধানমন্ত্রী পুরোপুরি বাতিল না করে কিছুদিনের জন্য স্থগিতের পরামর্শ দেন, যাতে অংশ নিতে যাওয়া ক্রীড়াবিদদের কোনো ক্ষতি না হয়। করোনা ভাইরাস যেন মহামারী হয়ে দেখা দিয়েছে সারা দুনিয়া জুড়ে। একটা কোন দেশ কিংবা মহাদেশে নয় পুরো দুনিয়া জুড়েই এখন চরম আতঙ্ক বিরাজ করেছিল। এখন একের পর এক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ও সিরিজ স্থগিত হচ্ছে। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের আসন্ন পাকিস্তান সফরও স্থগিত হতে যাচ্ছে। সবকিছু ঠিকঠাক। এখন কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাকি। এটা এক অনিবার্য সিদ্ধান্ত।
২১ ও ২২ মার্চ জাতির জনকের বঙ্গড়বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যকার দুটি টোয়েন্টি-২০ ম্যাচ অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও সেটি স্থগিত করা হয়েছে। পাকিস্তানে ১ এপ্রিল একটি ওয়ানডে এবং ৫-৯ এপ্রিল টেস্ট খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। ভেন্যু ছিল করাচি। যেখানে পাকিস্তান সুপার লিগের ম্যাচ দর্শকহীন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শীর্ষ বিদেশি খেলোয়াড়-কোচরা দেশে ফিরে যেতে শুরু করেছেন। পাকিস্তানের মধ্যে করাচিতে সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাস আক্রান্ত মানুষ পাওয়া গেছে। সিন্ধুর রাজধানীতে প্রায় জরুরি অবস্থার মধ্য দিয়ে চলছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ’করোনা ঝুকি নিয়ে পাকিস্তান সফরে পাওয়ার সুযোগ নেই। আমি কাউকে নতুন করে কোন ঝুকিতে ফেলতে চাইনা’। মুজিবর্ষ উপলক্ষ্যে বিপুল ব্যয়ের কনসার্টের সব আয়োজনই সেরে রাখা হয়েছিল। এক এ আর রহমানের সঙ্গে চুক্তিমূল্যই এক মিলিয়ন ইউএস ডলার। এর অনেকাংশ আগাম হিসেবে দিয়ে রাখা বিসিবি প্রস্তুতি নিচ্ছিল এশিয়া ও বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলতে যাওয়া ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক পরিশোধেরও। কিন্তু বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস এমন থাবা বসিয়েছে যে আয়োজনের গতিশীলতা থমকে গিয়েছিল এখানেও। ‘মুজিব হান্ড্রেড কাপ’ এর ম্যাচ দুটো  আরো তারকাবহুল করার চেষ্টায়ও কমতি ছিল না দেশের সর্বোচ্চ ক্রিকেট প্রশাসনের।
তবে আশার কথাও শোনা যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। করোনা ভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই জাপানী প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত অলিম্পিক গেমস আয়োজনের বিসয়ে নিজেদের অবস্থানের কথা আরো পরিস্কারভাবে বলেছেন। এই অবস্থার মধ্যেই জ্বলে উঠল অলিম্পিক মশাল। অলিম্পিকের প্রাচীন নগরী গ্রিক শহর অলিম্পিয়াতে মশাল জ্বালানো হয়েছে। গ্রিসের মাটিতে বিভিন্ন শহরে মশাল প্রদক্ষিণের কথা। তবে অতিরিক্ত জনসমাগমের কারণে এ সূচি বাতিল করেছে গ্রিস কর্তৃপক্ষ। করোনা ভাইরাসের কারণে জনগণকে বার বার সতর্ক করা হয়েছে যাতে তারা অলিম্পিক মশাল দেখতে না আসে। কিন্তু কে শোনে কার কথা! জনগণ রাস্তায় ভিড় জমিয়েছে। এর ফলে কর্মসূচি বাতিল করেছে গ্রিক সরকার। এদিকে টোকিও অলিম্পিক এক বছর পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু টোকিও অলিম্পিক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সময় মতোই অনুষ্ঠিত হবে অলিম্পিক গেমস। বর্তমানে পৃথিবীর অধিকাংশ দেশেই খেলাধুলার সব টুর্নামেন্ট হয় শূন্য স্টেডিয়ামে হচ্ছে নতুবা পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। করোনা ভাইরাসের কারণে কিছু টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়ে গেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাসকে ইতিমধ্যে মহামারী ঘোষণা করা হয়েছে। তাই আসন্ন টোকিও অলিম্পিক নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। তবে টোকিও’র সংগঠকরা আশ্বস্ত করে বলেছেন ঠিক সময়ই হবে দুনিয়ার সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞ। টোকিও অলিম্পিকের সংগঠক কমিটির প্রেসিডেন্ট ইয়োশিরো মোরি জানিয়েছেন, ‘অলিম্পিক নির্ধারিত সময়েই শুরু হবে। তবে করোনাভাইরাস যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে, তাতে আমরা চিন্তিত।’ এদিকে টোকিও অলিম্পিক গেমসের সাংগঠনিক কমিটির সদস্য হারুইউকি তাকাহাসি বাস্তবতা মেনে নিয়ে তিনি জানিয়েছেন, এই গেমস দু’বছর পিছিয়ে ২০২২ সালে নিয়ে যাওয়া হতে পারে।
করোনার কারণে যদি টোকিও অলিম্পিক পেছাতেই হয়, তবে কেন ২০২২ সালে। এ টুর্নামেন্টে তো ২০২১ সালেও আয়োজন করা যায়। ডব্লিউটিএ ইন্ডিয়ান ওয়েলস টুর্নামেন্ট বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিবছর চার লাখের বেশি দর্শক সমাগম হয় টেনিসের অন্যতম বৃহৎ এই আয়োজনে। যুক্তরাষ্ট্রে এই প্রথম করোনাভাইরাসের কারণে বড় কোনো ক্রীড়ার আয়োজন আটকে গেল। ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ ও ২০২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বের ২৩-৩১ মার্চ ও ১-৯ জুনের খেলা স্থগিত করা হয়েছে। চীনের মাটিতে ফুটবলের সব প্রতিযোগিতা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত। অন্যান্য খেলার কিছু ২০২০ সালের জন্য বন্ধ আর টেনিস, অলিম্পিক বাছাই, তায়কোয়ান্দোর কিছু প্রতিযোগিতা বিভিন্ন দেশে স্থানান্তরিত। জাপানের শীর্ষ ফুটবল আসর জে-লিগ মার্চের মাঝামাঝি পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছিল। কিন্তু শুরুর নতুন তারিখ এখনও ঘোষণা করা হয়নি। সহসা শুরু হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই ক্ষীণ। দক্ষিণ কোরিয়ার কে লিগ শুরুর কথা ছিল ২৯ ফেব্রুয়ারি, এখনও স্থগিত আছে। স্থগিত আছে সুপার লিগ এবং চ্যালেঞ্জ লিগও; যা হওয়ার কথা ছিল ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৩ মার্চ সময়ের মধ্যে। ক্রিস গেইলের মতো তারকার অংশগ্রহণে নেপালের এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগ শুরু কথা ছিল ১৪ মার্চ।
কিন্তু টোয়েন্টি-২০ ফরম্যাটের এই প্রতিযোগিতার চতুর্থ আসরটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ইতালিয়ান কাপের সেমিফাইনাল হয়নি; চূড়ান্ত হয়নি নতুন দিনক্ষণও। এরই মধ্যে ১৩ মের নির্ধারিত ফাইনাল পিছিয়ে দেয়া হয়েছে এক সপ্তাহ। চীনের নানজিংয়ে ১৩ থেকে ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা অ্যাথলেটিকসের ওয়ার্ল্ড ইনডোর চ্যাম্পিয়নশিপ। আগামী বছর পর্যন্ত স্থগিত। ১৫ মার্চ ১৭ হাজার রানারের অংশগ্রহণে শুরু হতে যাওয়া বার্সেলোনা ম্যারাথন স্থগিত হয়েছে এ বছরের অক্টোবর পর্যন্ত। মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য ছেলেদের ওয়ার্ল্ড কাপ চ্যালেঞ্জ লিগ এ’র খেলা স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। ১৬-২৬ মার্চ সময়ের প্রতিযোগিতাটিতে অংশ নেওয়ার কথা কানাডা, ডেনমার্ক, মালয়েশিয়া, কাতার, সিঙ্গাপুর ও ভানুয়াতুর।
একটা পর একটা ক্রীড়া আসরের পর সবদিক থেকেই ঝামেলা বাড়ছে। এদিকে ১২-১৫ মার্চ থাইল্যান্ডে হওয়ার কথা গলফের দ্য রয়্যালস কাপ। কিন্তু অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করেছে আয়োজক এশিয়ান ট্যুর কর্তৃপক্ষ। এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন-এএফসি কাপের গ্রুপ পর্বের সব খেলা ৭ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত। ২৭ মার্চ টোকিওতে একটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলার কথা ছিল জাপান ও দক্ষিণ আফ্রিকার। এক মাস আগেই স্থগিত হয়ে গেছে। মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) কংগ্রেস হওয়ার কথা ১৬ এপ্রিল। প্রায় দেড় মাস আগেই স্থগিত করা হয়েছে। মার্চের প্রথম সপ্তাহে দুবাইয়ে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের বৈঠক হওয়ার কথা। আসন্ন এশিয়া কাপের ভেন্যু চূড়ান্ত করণের বৈঠকটি আগামী মাসে হবে বলে জানানো হয়েছে। পরে সেটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে হওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে দর্শকদের জানানো হয়েছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলায় ইতালিতে অ্যাটালান্টার মুখোমুখি হয় ভ্যালেন্সিয়া। এই ম্যাচের সময় গ্যালারিতে কোনো দর্শক থাকেনি। তুরিনের জুভেন্তাস-লিও ম্যাচও এরই মধ্যে দর্শকশূন্য মাঠে অুনষ্ঠিত হয়েছে।
ইউরোপা লিগে দর্শকশূন্য করা হয়েছে ১২ ও ১৯ মার্চের ইন্টার মিলান-গেটাফে, ১৯ মার্চের রোমা-সেভিয়া ও কোপেনহেগান-ইস্তাম্বুল বাসাকশেরের ম্যাচ। ফ্রান্সের প্যারিসে পিএসজি-বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মধ্যকার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শেষ ষোলোর খেলা ‘ক্লোজড ডোরে’ অনুষ্ঠিত হয়। গ্যালারি দর্শকশূন্য করে খেলা চলেছে ভিয়েতনামের ভি লিগ, রোমানিয়ার প্রথম ও দ্বিতীয় বিভাগ লিগ এবং রোমানিয়ার সকল লিগে। বাহরাইনে ফর্মুলা ওয়ান গ্র্যান্ড প্রিক্স অনুষ্ঠিত হবে ২০-২২ মার্চ। সেখানে কোনো দর্শক থাকবে না। তখন কিভাবে কি আয়োজন করা হবে সে হিসাবও সঠিকভাবে রাখা সম্ভব হচ্ছে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ