বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ইউরোর জন্য ২০২১ পর্যন্ত অপেক্ষা করবে মানচিনি

স্পোর্টস ডেস্ক: করোন ভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে রূপ নেয়ায় বিশ্বব্যপী ক্রীড়াঙ্গনে এখন চলছে স্থরিব অবস্থা। বন্ধ হয়ে গেছে ইউরোপীয়ান পাঁচ শীর্ষ লিগসহ দেশগুলোর সব ফুটবল আয়োজন। এ অবস্থায় ইতালিয়ান কোচ রবার্তো মানচিনি বলেছেন ২০২১ পর্যন্ত ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপ স্থগিত হয়ে গেলে তাতে তার কোনো আপত্তি থাকবে না। ইতালিয়ান টেলিভিশন স্টেশন রাই স্পোর্টসকে মানচিনি বলেছেন, ‘এবারের গ্রীষ্মে আমরা ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপ জয়ের ব্যপারে আশাবাদী। ২০২১ সালে হলে সেখানেও আমরাই জিতবো। এখন উয়েফার সিদ্ধান্তের ওপর সব কিছু নির্ভর করছে। আমি সবকিছুর সাথে মানিয়ে নিতে প্রস্তুত আছি। এই মুহূর্তে আমার কাছে জীবনের নিরাপত্তা সর্বাগ্রে প্রাধান্য পাবে।’ আজ মঙ্গলবার ইউরোপীয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ইউরো ২০২০’সহ সব ঘরোয়া ও ইউরোপীয়ান আসরগুলো নিয়ে আলোচনায় বসবে। আগামী ১২ জুন থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত ইউরোপের ১২টি ভিন্ন শহরে এবারের ইউরো আয়োজনের কথা রয়েছে। ১২ জুন রোমে উদ্বোধনী ম্যাচের মাধ্যমে ইউরো শুরু হবে। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে ইতালিতে। ইতোমধ্যেই ২৪ হাজার আক্রান্তের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৮০৯ জনের। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ইতোমধ্যেই ৩ এপ্রিল পর্যন্ত সিরি-এ’সহ সব ধরনের ক্রীড়া আয়োজন বন্ধ করে দিয়েছে ইতালিয়ান সরকার। পুরো ইতালি জুড়ে চলছে লকডাউন। ম্যানচেস্টার সিটি ও ইন্টার মিলানের সাবেক কোচ মানচিনি আরো বলেছেন, ‘আমাদের এখানে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে পরিস্থিতি খারাপ হওয়া পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করি, আগে থেকেই সতর্কতা অবলম্বন করিনা। এখন শুধু অপেক্ষা কবে নাগাদ আমরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবো, ফুটবলে মাঠে যেতে পারবো, স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শকের সামনে খেলতে পারবো। আশা করছি দ্রুতই এর সমাধান খুঁজে পাবো।’ ইউরো ২০২০ বাছাইপর্বে ইতালি ১০টি ম্যাচের সবকটিতেই জয়ী হয়েছে। ২০১৮ বিশ্বকাপে খেলতে ব্যর্থ হবার পর মানচিনির অধীনে আবারো ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে আজ্জুরিরা। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ