শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পিছিয়ে যেতে পারে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ

করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে পিছিয়ে যেতে পারে আসন্ন ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ। এমনটাই জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি স্টার। ইউরোপের ২৪টি দল নিয়ে ১২ই জুন শুরু হওয়ার কথা এ টুর্নামেন্ট। 

তবে পুনর্নিধারিত সূচিতে ইউরো শুরু হতে পারে ডিসেম্বরে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগসহ ইউরোপের শীর্ষ লীগগুলো স্থগিত রয়েছে এখন। কমপক্ষে ৪ঠা এপ্রিল পর্যন্ত মাঠে গড়াচ্ছে না ক্লাব ফুটবল। এতে ব্যাপক আর্থিক ক্ষতির মুখে লীগগুলো। ডেইল স্টার বলছে, এই ক্ষতি কিছুটা যাতে পুষিয়ে নিতে পারে আয়োজকরা, সেজন্যই ইউরো পেছানোর কথা ভাবছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফা। যাতে বাকি ম্যাচগুলো আয়োজনের যথেষ্ট সময় পায় লীগগুলো। লীগগুলোর ব্যাপারে বিকল্প প্রস্তাবও আনা হয়েছে।

অনেকেই বলছেন, পুরো মওসুমই বাতিল করে দিতে। চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপ, অবনমন কিছুই থাকবে না। তবে এটা করতে গেলে এই মুহূর্তে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থাকা দলগুলোর প্রতি অবিচার করা হয়। বিশেষ করে লিভারপুলের ওপর। ৩০ বছর পর ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ ট্রফি জয়ের দ্বারপ্রান্তে অলরেডরা।

 

অনেকে আবার বলছেন, যতটুকু হয়েছে ততটুকু হিসাব করেই লীগ চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণ করা হোক। সেক্ষেত্রে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে লিভারপুল, স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সেলোনা, ইতালিয়ান সিরি আ’য় জুভেন্টাস, জার্মান বুন্দেসলিগায় বায়ার্ন মিউনিখ ও ফরাসি লীগ ওয়ানে পিএসজি চ্যাম্পিয়ন। এই প্রস্তাবনাতেও বলা হয়েছে, কোনো অবনমন থাকবে না লীগগুলোতে। তবে দ্বিতীয় বিভাগ থেকে দুটি দল প্রথম বিভাগে উঠে আসবে। ফলশ্রুতিতে আগামী মওসুমে ১৮ দলের পরিবর্তে খেলবে ২২ দল। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ