ঢাকা, মঙ্গলবার 14 July 2020, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ২২ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ইতালিতে একদিনে ১৩৩ জনের মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে ইতালি। দেশটিতে একদিনে এক লাফে ১৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৬৬ জনে। এদিকে দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৩৭৫ জনে। এ অবস্থায় জরুরি অবস্থা জারি করেছে ইতালি সরকার।

দেশটির নতুন কোয়ারেন্টাইন আইন অনুযায়ী এখন থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লম্বার্ডি এবং ১৪টি প্রদেশের ১ কোটি ৬০ লাখেরও বেশি মানুষকে ভ্রমণের ক্ষেত্রে বিশেষ অনুমতি নিতে হবে।

এদিকে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ায় আগামী ৩ এপ্রিল পর্যন্ত সকল স্কুল, ব্যায়ামাগার, যাদুঘর, নাইটক্লাবসহ অন্যান্য স্থান বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্তে।

এর আগে, গত সপ্তাহে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১০ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে সরকার।

রেড জোন হিসেবে রয়েছে- মোডেনা, পারমা, পিয়াসেনজা, রেজিও এমিলিয়া, রিমিনি, পেসারো এবং উরবিনো, ভেনিস, পদুয়া, ট্র্যাভিসো, আস্তি, আলেসান্দ্রিয়া, নোভারা, ভারবানো, কুসিও অসসোলা এবং ভেরসেল্লি। এসব এলাকা থেকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।

ইতালির সরকার বলছে, এই রেড জোনের আইন কেউ অমান্য করলে ২০৬ ইউরো জরিমানা অথবা তিন মাসের জেল দেয়া হবে। স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, সিনেমা আগামী ১৫ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ নিশ্চিত করা হয়েছে।

এদিকে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। এখন পর্যন্ত এক লাখ ১০ হাজার ৫৬ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৩ হাজার ৮২৮ জন। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত ৬২ হাজার ২৭৬ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে।

বিশ্বের ১০৯টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। শুধুমাত্র চীনের মূল ভূখণ্ডেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৭৩৫ এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ১১৯ জনের। চীনের পর করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ হাজার ৩৮২ এবং মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের।

ডিএস/এএইচ

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ