বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে স্বস্তির ড্র সাইফ স্পোর্টিংয়ের

স্পোর্টস রিপোর্টার: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে চট্টগ্রাম আবাহনীর সাথে ড্র করেছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। দুই গোলে পিছিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ড্র হওয়ায় স্বস্তিতে ক্লাবটির কর্মকর্তারা। গতকাল রোববার ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে দুই দলের প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ২-২ গোলের সমতায় শেষ  হয়েছে। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে খেলা শুরু হলেও ম্যাচের প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। চট্টগ্রাম আবাহনীর পক্ষে আক্রমনভাগের ফুটবলার নিক্সন গুইয়েরা ও ম্যাথিউ গোল করেন। অপরদিকে দুটি গোল উপহার দিয়ে সাইফ শিবিরে স্বস্তি এনে দেয়ার নায়ক রুয়ান্ডার এই ফরোয়ার্ড বাইসেঙ্গে। প্রথমার্ধটা সমান তালে লড়াই করলেও দ্বিতীয়ার্ধে ১০ জনের দলে পরিনত হয় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। ১০ জনের দলে পরিণত হওয়ার পর খেই হারায় সাইফ স্পোর্টিং। হজম করল দুই গোল। ম্যাচের ৫৯ মিনিটে এক খেলোয়াড়কে মারাত্মক ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন সাইফের ফয়সাল আহমেদ। এর দুই মিনিট পর গোল খেয়ে বসে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটিকে আগের দুই ম্যাচে হারানো সাইফ। সংঘবদ্ধ আক্রমনে ডান দিক থেকে চিনেডু ম্যাথিউয়ের আড়াআড়ি ক্রসে নিক্সন গুইয়েরা হেড করেন। বল পেয়ে যান দূরের পোস্টে থাকা চার্লস দিদিয়ের। তার ফিরতি পাসে প্লেসিং শটে জাল খুঁঁজে নেন গুইয়েরা ১-০।পিছিয়ে পড়া সাইফের রক্ষন গুছানোর আগেই পার্থক্যে আবারো পিছিয়ে পড়ে সাইফ। ৬৫ মিনিটে মোনায়েম খান রাজুর কর্নারে দিদিয়েরের হেড গোললাইন থেকে ফেরান ডিফেন্ডার রিয়াদুল ইসলাম রাফি। ছয় মিনিট পর এমেরি বাইসেঙ্গের ফ্রি-কিক পাঞ্চ করে ফিরিয়ে চট্টগ্রাম আবাহনীর ত্রাতা মোহাম্মদ নাঈম।৭৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের কাছে আগের ম্যাচে হেরে আসা চট্টগ্রাম আবাহনী। দিদিয়েরের বাড়ানো বল ধরে প্রথম দফায় গোলরক্ষকের গায়ে মারার পর ফিরতি শটে লক্ষ্যভেদ করেন ম্যাথিউ ২-০।ম্যাচের শেষ দিকে রাফির ফ্রি-কিকে এক সতীর্থ হেড করার পর গোলমুখ থেকে নিখুঁত টোকায় সাইফকে ম্যাচে ফেরান বাইসেঙ্গে ১-২। ম্যাচের যোগ করা সময়ে কর্নার থেকে হেডে সমতা ফেরান রুয়ান্ডার এই ফরোয়ার্ড ২-২। লিগের তিন ম্যাচ শেষে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব দুই জয় ও এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে। অপরদিকে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট অর্জন চট্টগ্রাম আবাহনীর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ