শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

পুলিশে হোঁচট চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরার

স্পোর্টস রিপোর্টার: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে বড় চমক দিল নবাগত পুলিশ এসসি। হার দিয়ে লিগ শুরু করা দলটি দ্বিতীয় ম্যাচেই রুখে দিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। তাই তো রেফারির শেষ বাঁশি বাজতেই পুলিশ এফসি  খেলোয়াড়দের বাঁধভাঙ্গা উল্লাস। একে অন্যের সঙ্গে হাত মিলিয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন। নেওয়ারই কথা। বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের সঙ্গে পিছিয়ে পড়েও ১-১ গোলে ড্র করেছে নবাগত দলটি। গতকাল বৃহস্পতিবারের ম্যাচে তাদের কাছে এই ড্রটি তাই অনেকটা জয়ের মতোই!লিগে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের যাত্রা মসৃন হচ্ছে না। নীলফামারীতে নিজেদের মাঠে প্রথম ম্যাচে উত্তর বারিধারার বিপক্ষে ৮৩ মিনিটের একমাত্র গোলে জয় এসেছে। এবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এগিয়ে থেকেও নিজেদের ভুলে পয়েন্ট হারাতে হলো!

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বসুন্ধরায় অভিষেক হলো ফিনল্যান্ড প্রবাসী ফুটবলার তারিক কাজীর। সেন্টার ব্যাক হিসেবে খারাপ খেলেননি এই তরুণ। তারপরেও দলকে গোল খাওয়া থেকে রক্ষা করতে পারেননি। ম্যাচের প্রথমার্ধে বল নিয়ন্ত্রণে বসুন্ধরা এগিয়ে থাকলেও পুলিশ আক্রমণে ছিল এগিয়ে। যদিও আগের ম্যাচে আবাহনীর কাছে হারা ভিতোরিভিচের দল খেলেছে প্রতিআক্রমণ নির্ভর ফুটবল।ম্যাচের ১৫ মিনিটে পুলিশের লাসকভ আন্তোনিওর ফ্রি-কিক গোলকিপার জিকো ফিষ্ট করে ফেরান।বসুন্ধরা আক্রমণে ওঠে ৩৫ মিনিটে। জটলা থেকে  নিকোলাস দেলমন্তের ব্যাক হিল এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে গোল হয়নি। পাঁচ মিনিট পর রিভেরা সিডনির শট পোস্টের বাইরে দিয়ে গেলে গোলের দেখা পায়নি পুলিশ।

প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। বিরতির পর বসুন্ধরার আক্রমণে তেজ বাড়ে। ৫৩ মিনিটে গোলও পায় তারা। কলিনদ্রেসের ক্রসে দেলমন্তের বক্সের ভিতরে থেকে শট গোলকিপার সাইফুল ইসলাম খান ফিরিয়ে দেন। ফিরতি বলে তৌহিদুল আলম সবুজ শুধু একটি টোকা দিয়ে পাঠান জালে। ৬৫ মিনিটে আখতাম নাজারভের শট পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়।তিন মিনিট পার্থক্যে কলিনদ্রেসকে গোল পেতে দেননি পুলিশের গোলকিপার। ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঁচিয়ে দিয়েছেন তার শট।

চার মিনিট পরই বসুন্ধরা গোল খেয়ে যায়। বদলি এম এস বাবলুর ক্রস পোস্টে লেগে ফিরে আসে, ফিরতি বল ডিফেন্ডার নুরুল নাইম ফয়সালের গায়ে লেগে জালে জড়িয়ে যায়। যদিও রেফারি গোল দিয়েছেন বাবলুর নামে।বাকি সময় বসুন্ধরা চেষ্টা করেও গোল করতে পারেনি। ফলে দ্বিতীয় ম্যাচেই পয়েন্ট খোয়াতে হলো চ্যাম্পিয়নদের। ফলে দুই ম্যাচে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট বসুন্ধরার। হার লিগ শুরু করা পুলিশ এই ড্রয়ে পয়েন্টের খাতা খুলল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ