শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

শিক্ষিকাদের জন্য নির্মিত মহিলা হোস্টেলটি পরিত্যক্ত

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) : মাধবপুর উপজেলার বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকাদের জন্য উপজেলা কমপ্লেক্স এলাকায় নির্মিত একমাত্র মহিলা হোস্টেলটি নির্মাণের মাঝপথে থেমে আছে অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে। এখন নির্মাণাধীন ভবনের ইটে ধরেছে শেওলা। ভবনের বিভিন্ন অংশে গজে উঠেছে গাছ-গাছালি। বিগত প্রায় ৭ বছর ধরে ভবনটির নির্মাণ কাজ অদৃশ্য কারণে বন্ধ রয়েছে। লাখ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ভবনটি দিন দিন ধ্বংসের পথে চলে যাচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের কেউই নির্মাণ বন্ধের কারণ জানাতে পারেনি। ২০০৪ সাল থেকে অর্ধনির্মিত ভবনটি এভাবেই পড়ে আছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জীবন ভট্টাচার্য্য জানান, বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মহিলা শিক্ষকদের আবাসন সমস্যা সমাধান করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ইউরোপীয় কমিশনের আর্থিক সহায়তায় ২৮ লাখ টাকা অনুদানে গ্রামীণ বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মহিলা শিক্ষক উব্ধুদ্ধকরণ, প্রশিক্ষণ ও নিয়োগ কার্যক্রম (প্রমোড) প্রকল্পের আওতায় ২০০৩ সালে এ কার্যক্রম শুরু হয়। কিছু দিন পর প্রকল্পটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় হোস্টেল নির্মাণের কাজ আটক পড়ে যায়। কিন্তু কোন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কাজটি দেয়া হয়েছিল তা বলতে পারেনি উপজেলা প্রশাসনের কেউই। এ ব্যাপারে গ্রামীণ বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মহিলা শিক্ষক উব্ধুদ্ধ করণ প্রশিক্ষণ ও নিয়োগ কার্যক্রমের (প্রমোড) লিয়াজো কর্মকর্তা আইরিন পারভীনের সঙ্গে যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে মাধবপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সাইফুল হক মৃধার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান হোস্টেলটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে মহিলা শিক্ষকদের অনেক সুবিধা হত। এখানে অবস্থান করে শিক্ষিকাদের স্কুলে যাওয়া সহজ হতো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ