শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

দ্বিতীয় স্থানে ওঠার সুযোগ নষ্ট ল্যাজিওর

ক্লাবের ইতিহাসে টানা ২১ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়েছে ল্যাজিও। কিন্তু বুধবার হেলাস ভেরোনার সাথে গোলশুন্য ড্র করে সিরি-এ লিগে দ্বিতীয় স্থানে ওঠার সুযোগটি হাতছাড়া করেছে ক্লাবটি। গত ডিসেম্বরে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। কিন্তু ঐ সময় সৌদি আরবে ইতালিয়ান সুপার কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ায় ম্যাচটির তারিখ পরিবর্তন করা হয়। দেশের বাইরে অনুষ্ঠিত সুপার কাপে জুভেন্টাসকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে শিরোপা জিতেছিল ল্যাজিও। এই ড্রয়ের ফলে সিমোনে ইনজাগির দল দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইন্টার মিলানের থেকে এক পয়েন্ট পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। তবে শীর্ষে থাকা জুভেন্টাসের থেকে রোমান্সরা চার পয়েন্ট পিছিয়ে আছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা করে নেবার জন্য চতুর্থ স্থানের জন্য লড়াই চালিয়ে যাওয়া আটালান্টার সঙ্গে জুভেন্টাসের পয়েন্টের ব্যবধান ১১। রোমার সাথে গোল ব্যবধানে এগিয়ে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে আটালান্টা। ল্যাজিও বস ইনজাগি বলেছেন, ‘ম্যাচটি বেশ কঠিন ছিল। হতশাজনক ফলাফল সত্তেও আমরা শেষ পর্যন্ত স্বস্তি নিয়েই মাঠ ছেড়েছি। আমরা আজ পোস্টে ২৭টি শট নিয়েছি, এর মধ্যে দুটি পোস্টে লেগেছে। দলের কাছে এর থেকে বেশী আমি আশা করতে পারিনা। ফলাফল অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ পারফরমেন্স, শেষ পর্যন্ত সেটাই থাকবে।’ সেন-গোরান এরিকসনের অধীনে ১৯৯৯ সালে ল্যাজিও সিরি-এ লিগে টানা ১৭ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়েছিল। সেই কৃতিত্বকে এবার ছাড়িয়ে নিজেদের দারুনভাবে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে রোমের দলটি। এরিকসনের অধীনে ইনজাগি খেলোয়াড় হিসেবে দলকে সর্বশেষ ১৯৯৯-২০০০ মৌসুমে লিগ শিরোপা জয়ে সহযোগিতা করেছেন। ঘরের মাঠ স্তাদিও অলিম্পিকোতে গতকাল সিরি-এ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা সিরো ইমোবিলে তার গোলসংখ্যা ২৫ থেকে বাড়িয়ে নেবার সুযোগ নষ্ট করেছেন। তবে দলের এই এক পয়েন্ট সংগ্রহে স্বাগতিকরা তাদের গোলরক্ষক থমাস স্টারকোশাকে ধন্যবাদ জানাতেই পারে। ম্যাচের শুরুর দিকে মাত্তেও পেসিনা ও ফ্যাবিও বোরিনিকে হতাশ করে তিনি ল্যাজিওকে পিছিয়ে পড়তে দেননি। ল্যাজিও মিডফিল্ডার লুইস আলবার্তো তিনটি সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেছেন। তার দুটি শট পোস্টে লেগে ফেরত আসে। এরপর ইনজুরি টাইমে তাকে হতাশ করেন ভেরোনা গোলরক্ষক মার্কো সিলভেস্ট্রি। এই ড্রয়ে ভেরোনা ষষ্ঠ স্থানে ওঠার সুযোগ নষ্ট করেছে। যে কারনে ইউরোপা লিগে খেলাও এখন হুমকির মুখে পড়েছে। তাদের বর্তমান অবস্থান নবম হলেও ইউরোপীয়ান আসরে জায়গা করে নিতে আর মাত্র এক পয়েন্ট প্রয়োজন। ইন্টারনেট। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ