বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

চুয়াডাঙ্গায় সড়কে গাছ ফেলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গণডাকাতি

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা: চুয়াডাঙ্গার আলুকদিয়ার টেইপুর-ঝোড়াঘাটা সড়কে গাছ ফেলে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ গণডাকাতির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাতেই ডাকাতদল ধরতে ও ডাকাতি হওয়া মালামাল উদ্ধার অভিযানে নামে। তবে ডাকাতির সাথে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। উদ্ধার হয়নি ডাকাতি হওয়া নগদ অর্থ ও মালামাল।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, টেইপুর-ঝোড়াঘাটা সড়কের টেইপুর গ্রাম সংলগ্ন মাঠে ৫/৬ জনের ডাকাতদল রাস্তায় গাছ ফেলে বেরিকেড দেয়। এ সময় রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী মোটরসাইকেল, আলমসাধুসহ ছোট ছোট যানবাহন ঠেকিয়ে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা ও মূল্যবান মালামাল ডাকাতি করে। ঘন্টাব্যাপী তান্ডব চালিয়ে সটকে পড়ে ডাকাতদল। খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ ডাকাতদল ধরতে ও ডাকাতি হওয়া মালামাল উদ্ধার অভিযানে নামে।
ডাকাতির শিকার আলুকদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আক্তাউর রহমান মুকুল বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আমি এবং আমার বন্ধু আকুন্দবাড়িয়ার আনন্দকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে ভালাইপুর মোড় হয়ে পীরপুরে যাচ্ছিলাম। এ সময় ঝোড়াঘাটা গ্রামসংলগ্ন মাঠে পৌঁছালে রাস্তায় পাশে একটি আলমসাধু রেখে গাছ রাস্তায় গাছ ফেলে সড়ক বন্ধ করে রাখা হয়। মোটরসাইকেল থামিয়ে রাস্তা বন্ধ রাখা কেন? জানতে চাইলে তারা জানায় আমরা র‌্যাবের লোক ফেনসিডিলের চালান যাচ্ছে তাই চেকিং করছি। কথা বলতে বলতে পাশ থেকে ৪/৫ জন হাফপ্যান্ট পরা মুখোশধারী এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জিম্মি করে ফেলে। কাছে থাকা ৭০ হাজার এবং বন্ধু আনন্দের কাছে থাকা ৪৮ হাজার কেড়ে নেয়। এ সময় আরও একজন পান ব্যবসায়ীকে জিম্মি করে তার নিকট থাকা ১০ হাজার টাকাও কেড়ে নেয়। এভাবে প্রায় ২৫/৩০ জনকে আটককে নগদ টাকা ও সোনার গয়নাসহ যার কাছে যা ছিল সবই কেড়ে নেয়। এভাবে প্রায় ঘন্টাখানেক তান্ডব চালিয়ে ডাকাতদল আমাদেরকে চলে যেতে বলে। ওখানে মোটরসাইকেলে নিয়ে টেইপুরে পৌঁছে পুলিশকে জানানোর পাশাপাশি গ্রামবাসীকে জানায়। খবর ছড়িয়ে পড়লে হুচুকপাড়া, ঝোড়াঘাটা ও টেইপুরের লোকজন ছুটে আসে। ততক্ষনে ডাকাত দল সটকে পড়ে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ