বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

বসতি উচ্ছেদ না করে বেড়িবাঁধ প্রকল্পের নকশা পরিবর্তনের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার: কক্সবাজারের চৌফলদণ্ডী রাখাইন বসতি উচ্ছেদ না করে বেড়িবাঁধ প্রকল্পের নকশা পরিবর্তন করার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ রাখাইন স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন।
গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- রাখাইন বুড্ডিস্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের অর্থ সম্পাদক মি মংউসাং, মি খিংমং, হ্লাচিং, উহ্লামং, মংখিংওয়াং প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, উন্নয়নের নামে উচ্ছেদ নয়। কক্সবাজারের চৌফলদণ্ডী বেড়িবাঁধ নির্মাণের উদ্দেশে ৪০০ বছর ধরে বসবাসরত রাখাইন পল্লী, বৌদ্ধ বিহার ও শ্মশানসমূহ উচ্ছেদ না করে ওই প্রকল্পের নকশা পরিবর্তন করে পশ্চিম দিকে খাস জমি হস্তান্তর করার জন্য দাবি জানান।
তারা আরও বলেন, প্রকল্পের জন্য রাখাইনদের ১০০টি বসতবাড়ি, তিনটি বৌদ্ধমন্দির ও তিনটি শ্মশান উচ্ছেদ করার পায়তারা চলছে। এগুলো রক্ষার জন্য ইতোপূর্বে আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি লিখিত অভিযোগ দেই। কিন্তু কোনো সুফল আসেনি।
বাংলাদেশ রাখাইন স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মংচোওয়ান রাখাইন অভি বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এ ইউনিয়ন থেকে রাখাইন সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠী বিলুপ্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ প্রকল্পের জন্য উচ্ছেদ প্রক্রিয়া অবিলম্বে স্থগিত করতে হবে। পাশাপাশি সুরক্ষিত বেড়িবাঁধ দক্ষিণ-পশ্চিমাংশের কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের মালিকানাধীন সরকারি পরিত্যক্ত জমিতে সংরক্ষণ করতে হবে। এছাড়া বিকল্প হিসেবে সুপার বাইক নির্মাণ করলে রাখাইন সম্প্রদায় বিলুপ্ত থেকে রক্ষা পাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ