বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

গুচ্ছ ছড়া

মোশাররফ হোসেন খান এর গুচ্ছ ছড়া

 

চাঁদের কলি

 

কলির খোঁজে ছুটতে থাকি 

জানি না পথ, পথের বাকি ।

পেরিয়ে এলাম বাকখালি 

নদীর পাড়ে পাখ-পাখালি ।

 

বন-বনানী ছাড়িয়ে এলাম 

রেনুছড়া তাও পেরুলাম ।

হাঁটতে হবে আরও দূর ?

সামনে দেখি আগুন পুর!

 

ওগো পায়রা পাখনা দেবে ?

ক্লান্ত ভীষণ, সঙ্গে নেবে ?

পথ ভোলা ভাই তাইতো বলি,

কাঁদছে বুঝি চাঁদের কলি !

 

পুবাল হাওড়ি কোথায় যাও ?

কলির কাছে উড়িয়ে নাও।

 

খোকার ঘুম

 

এপার ওপার বিশাল ফাঁক 

নদীর পাড়ে মদনটাক 

বাড়ির পাশে মস্ত মাঠ 

একপাশে তার পুকুর ঘাট

ঘাটশালিকের ছোট্ট বাসা

বাবুই পাখির দারুণ খাসা 

মোরগ ডাকে কোকোর কোঁ

ভোমরা ওড়ে ভোমর ভোঁ

পায়রা ডাকে বাকবাকুম

যায় ছুটে যায় খোকার ঘুম।

 

 

ফুল

 

আজ তরতাজা ফুল

বিবর্ণ হবে কাল

তারপর শুকিয়ে যাবে

বিশুষ্ক হবে ডাল।

 

কিন্তু হৃদয়ে যদি 

ফোটাও ফুল

তার গন্ধ ছড়াবে

নদীর দুকূল।

 

 

ঐ বুড়িটার মতোই

 

ঐ বুড়িটার মতোই তুমি

ভাবনা কাতর নাকি?

ঐ বুড়িটার মতোই হতে

আর কতোটা বাকি ?

 

ঐ বুড়িটার চক্ষু দুটি

সুদূর পানে খোলা

ভাবছে কি বলতে পারো

তার হৃদয়ে দোলা?

 

 

শীতের পাখি

 

শীতের পাখি শীতের পাখি 

কোথায় উড়ে যাও ?

- অনেক দূরে বাংলাদেশে

 সবুজ শ্যামল গাঁও।

 

 

মামণি

 

দিনটি হোক খুশি ভরা 

দিনটি হোক ভালো 

এমন দিন প্রতিদিন

ছড়িয়ে যাক আলো।

মামণিটার জন্য

শুভ দিনটাই গণ্য।

 

 

নতুন দিন

 

নতুন দিন নতুন আলো 

রঙিন স্বপ্ন মুখে

সেই স্বপ্নটি পূর্ণ হবে 

সাহস রেখো বুকে।

 

কথা

 

একটু কথা একটু হাসি

বাড়িয়ে দেয় স্বপ্ন রাশি।

দূর হয়ে যাক আঁধার কালো

থাকনা জেগে বাঁচার আলো।

 

 

পুবাল হাওয়া

 

এখন কলি কুঁড়ির মাঝে

রাতে বুঝি ফুটবে

বুকের ভেতর সুবাস নিয়ে

আমার দিকে ছুটবে !

 

ওরে ও পুবাল হাওয়া

কলির কাছে জলদি যাও

আমার খবর জানাও তাকে

তার খবরটা আমায় দাও।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ