মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন দিয়ে কোটি টাকার স্বর্ণ পাচার

 

লালমনিরহাট সংবাদদাতা : লালমনিরহাটের পাটগ্রামের বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারতে পাচার হওয়া প্রায় ২ কেজি ওজনের কোটি টাকার স্বর্ণসহ মনির হোসেন নামে এক বাংলাদেশি যাত্রীকে আটক করেছে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা কাস্টমস কর্তৃক্ষ। গতকাল সোমবার জেলার পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইমিগ্রেশন ইনচার্জ খন্দকার মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আটক বাংলাদেশি পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলার গোপালনগর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে।

এদিকে, বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন দিয়ে এভাবে প্রায় কোটি টাকার স্বর্ণ ভারতে পাচার হওয়ায় নরে-চড়ে বসেছে স্থানীয় প্রশাসন। কাস্টমস, বিজিবি ও ইমিগ্রেশন পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে কিভাবে ভারতে স্বর্ণের বার পাচার হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সব মহলে।

জানা গেছে, আটক মনির হোসেন সোমবার সকালে বুড়িমারী স্থলবন্দর চেকপোস্টে আসে। দুপুরে বুড়িমারী ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট হয়ে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা শুল্ক স্টেশনে প্রবেশ করে। বাংলাদেশি মনির হোসেনকে ভারতীয় শুল্ক কর্মকর্তারা সন্দেহ করে। পরে মনিরের শরীর তল্লাশি করে প্রায় ২ কেজি স্বর্ণের বার পাওয়া যায়। ওই সময় তাকে আটক করে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। বুড়িমারী ইমিগ্রেশন ইনচার্জ খন্দকার মাহমুদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ