মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে অজ্ঞাতনামা শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) সংবাদদাতা : দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন তেঘরিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডে ইকুরিয়া বেয়ারা এলাকায় থেকে অজ্ঞাতনামা শিশু (০৯) এর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। গত শনিবার দুপুরে পুলিশ নিহত শিশুর লাশ উদ্ধার শেষে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। খবর শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কেরানীগঞ্জ পুলিশের সার্কেল এএসপি রামানন্দ সরকার ও ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হাসান সরদার।

জানা যায়, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন ইকুরিয়া বেয়ারা চোকিদার টাগার এলাকায় বিলের মধ্যে অজ্ঞাতনামা এক মেয়ে শিশুর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসি। পড়ে তারা বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানালে ইউপি সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়ে শিশুর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পড়ে তিনি থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যায়। স্থানীয় তেঘরিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য মোঃ সেলিম জানান, শনিবার দুপুর ১২টার সময় এলাকার লোকজনের মুখে সংবাদ জেনে আমি ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে আশপাশের লোকজনকে ডেকে লাশটি দেখাই। কেউ লাশটি চিনতে পারেনি। আমার ধারনা হচ্ছে মেয়ে শিশুটিকে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা অন্যত্র থেকে এনে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ রেখে পালিয়ে যায়। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার এস আই সাক্রাতুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল থেকে মেয়ে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। মেয়েটির বয়স আনুমানিক ৯ বছর হবে। পরনে টিয়া রংয়ের জামা ও খয়েরি রংয়ের সেলোয়ার পরিহিত ছিল। লাশের পাশে একটি বিস্কুট কালারের শার্ট পাওয়া গেছে। শার্ট হয়তো ধর্ষকের বা হত্যাকারীর হতে পারে। এ ব্যাপারে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হাসান সরদার বলেন, খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে এসে নিহত অজ্ঞাত নামা শিশুর লাশ দেখি। লাশ দেখার পর ধারনা করা হচ্ছে শিশুটিকে অন্যত্র থেকে কোন কিছুর প্রলোভন দেখিয়ে উক্ত স্থানে এনে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্ত রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত শিওর হয়ে কিছুই বলা যাচ্ছে না। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে এ হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত সকল আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা দেয়ার চেষ্টা করবো। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অজ্ঞাতনামা নিহত শিশুর পরিচয় পাওয়া যায়নি। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ