মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

শরীয়তপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের গণশুনানী অনুষ্ঠিত

শরীয়তপুর সংবাদদাতা : সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র নিয়ে শরীয়তপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের গণশুনানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্মিত ফরিদপুর জেলা কার্যালয়ের সম্প্রতি শরীয়তপুর সদর উপজেলা সভাকক্ষে অভিযোগকারী ও অভিযুক্তদের সামনে এ শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। যে সকল সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের অভিযুক্ত ব্যক্তি উপস্থিত হয়নি তাদের দপ্তরের প্রধানগণ অভিযোগের বিষয়ে জবাব দেন। এছাড়াও নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুকসহ অনেক অভিযোগকারী এবং অভিযুক্ত ব্যক্তি উপস্থিত না হওয়ায় তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দুর্নীতি দমন কমিশনার (অনুসন্ধান) ড. মোজাম্মেল হক খান।  

এ সময় প্রধান অতিথি দুর্নীতি দমন কমিশনার (অনুসন্ধান) ড. মো: মোজাম্মেল হক খান বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের অভাবে যদি কোন বিচার না হয় তাহলে সময় নষ্ট করা ছাড়া আর কিছুই না। আমি এ জেলার মত এ রকম দুরাবস্থা কোথাও দেখি নাই। অভিযোগকারী নাম প্রকাশ করবে না, নাম প্রকাশ করলেও উপস্থিত থাকবে না, অভিযোগ সুনির্দিষ্ট করবে না এটার জন্য দায়ীকে? যে দপ্তর বা ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে, তাকে প্রশ্ন করলে তিনি কোর্টের ভাষায় বলবেন আনিত অভিযোগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন এবং বানোয়াট। আমাদের সুনাম নষ্ট করার জন্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এ অভিযোগ করেছে। আমি আশা করি আগামীতে আপনারা প্রমানসহ অভিযোগ দাখিল করলে সুবিচার পাবেন। তিনি আরো বলেন সভ্য ও উন্নত জাতি হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে হলে আমাদের সকলের দৃষ্টিভঙ্গি ও মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। দেশপ্রেম নিয়ে দেশের সেবা করতে হবে। অন্যথায় আমরা কখনো উন্নত ও সভ্য জাতি হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পারবো না। সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার লক্ষে আমাদের দুর্নীতিকে না বলতে হবে। আমাদের সকলকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহেরের সভাপত্বি অনুষ্ঠিত গণশুনানীতে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্মিত ফরিদপুরের উপ-পরিচালক মোঃ আবুল কালাম আজাদ, শরীয়তপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তপাদার প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ