সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

সুপ্রিম কোর্ট বার সম্পাদকের

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর ও বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাদের ওপর ছাত্রলীগ ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এ.এম. মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গতকাল সোমবার সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে ব্যারিস্টার খোকন বলেন, এতে প্রমাণিত হয় নির্বাচিত প্রতিনিধিদের প্রতি সরকারি দলের কোনো সম্মানবোধ নেই। তারা নির্বাচিত ও অনির্বাচিত কাউকে সহ্য করতে পারে না, সন্ত্রাসী হামলা তারই বহিঃপ্রকাশ। তিনি অবিলম্বে হামলার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

অন্যদিকে, ডাকসু ভিপিসহ ছাত্রনেতাদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের সংগঠন ন্যাশনাল লইয়ার্স কাউন্সিলের (এনএলসি) চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এস.এম. জুলফিকার আলী জুনু। গতকাল সোমবার সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

হামলায় আহতদের দেখতে ঢাকা মেডিক্যালে গিয়েছেন এনএলসি নেতৃবৃন্দ। গতকাল সোমবার বিকাল ৪টায় এনএলসির নেতৃবৃন্দ ডাকসুর ভিপি নুরসহ আহতদের পাশে গিয়ে তাদের শারীরিক অবস্থা ও চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন। এ সময় ভিপি নুরকে বর্তমান সময়ের একজন আপসহীন ছাত্রনেতা হিসেবে আখ্যা দিয়ে তার পাশে থাকার এবং সকল প্রকার আইনগত সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দেন তারা।

এনএলসির প্রতিনিধি দলের মধ্যে ছিলেন, অ্যাডভোকেট জুলফিকার আলী জুনু, আলহাজ্ব মো: মোসলেম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট এম আমিনুল ইসলাম মুনির, অ্যাডভোকেট একেএম মোক্তার হোসেন, অ্যাডভোকেট আবু সাইদ মো: বক্তিয়ার, অ্যাডভোকেট ওবায়দুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট নাজমুল হাসান প্রমুখ।

এদিকে ডাকসু ভিপি নুরসহ সাধারন শিক্ষার্থীদের উপর ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের নিষ্ঠুর বর্বর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, ছাত্রলীগের পৈচাশিক নৃশংস অত্যাচার, নির্যাতন-নিপীড়ন মধ্যযুগীয় বর্বতাকে হার মনিয়েছে। আওয়ামী লীগ বিরোধী শক্তিকে নির্মূল করতে ছাত্রলীগকে রক্ষীবাহিনীর মতো ব্যবহার করছে। ভিপি নুরসহ ঢাবি শিক্ষার্থীদের উপর পরিকল্পিত ন্যাক্কারজনক বর্বর হামলা নতুন কিছু নয়। নুরদের কন্ঠরোধ করতে দফায় দফায় হায়েনার মতো ঝাপিয়ে পড়ছে ছাত্রলীগ নামক গুন্ডাবাহীনি।

গতকাল সোমবার বিকালে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন ডাকসুর ভিপি নুরসহ আহত ছাত্রদের দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের সাথে একথা বলেন।

সন্ত্রাস, খুন, ধর্ষন, চাদাঁবাজি, টেন্ডারবাজি, ভর্তিবানিজ্য, ক্যাম্পাস দখল এখন ছাত্রলীগের নিয়মিত কর্মসুচীতে পরিনত হয়েছে মন্তব্য করে ডাঃ ইরান বলেন, ধারাবাহিক সন্ত্রাসের ফলে ছাত্রলীগ আজ শিক্ষাঙ্গনে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে মূর্তিমান আতঙ্কের নাম। ছাত্র-ছত্রী, শিক্ষক, সাধারন মানুষ এমনকি শিশুরাও তাদেও হিং¯্র থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছে না। দর্জিশ্রমিক বিশ^জিৎ দাস, মেধাবীছাত্র আবু বকর ও বুয়েটের আবরার হত্যা, দশবছরের শিশু রাবিব গুলীবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ার পরও ছাত্রলীগ নাম জঙ্গি সংগঠনকে নিষিদ্ধ না করায় তারা আজ দানবে পরিনত হয়েছে। 

এসময় বাংলাদেশ ছাত্রমিশন কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈয়দ মোঃ মিলন, সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান, যুবমিশন সদস্য সচিব মোঃ সৌকত চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক ফিরোজ মাহমুদ ও কেন্দ্রীয় সদস্য রাকিব হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ