শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

সিলেটে শাহী ঈদগাহে সিনেমার শুটিং ॥ শাস্তির দাবি বিভিন্ন মহলের

সিলেট ব্যুরো : সিলেট নগরীর শাহী ঈদগাহে সিনেমার শুটিংকারীদের শাস্তি দাবি করেছে সিলেটের বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন। জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম, ইসলামী ছাত্র মজলিস, ইমাম সমিতির নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক বিবৃতিতে শাস্তির ব্যবস্থা না করা হলে কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছেন।
শাহী ঈদগাহে শুটিং করার বিষয়টিকে ‘ধৃষ্টতা’ হিসেবে উল্লেখ করে নিন্দা জ্ঞাপন করে জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগরী শাখা। সংগঠনটির সভাপতি মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাব, সেক্রেটারি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম এক বিবৃতিতে বলেন, হজরত শাহজালালের পুণ্যভূমি আধ্যাত্মিক নগরী সিলেটের শাহী ঈদগাহে সিনেমার শুটিং করে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের হৃদয়ে আঘাত করেছে। এদের আইনের আওতায় আনতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান। সিলেট জেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা শায়খ জিয়া উদ্দিন, মহানগর সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান, জেলার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান ও মহানগর সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ফখরুজ্জামান এক বিবৃতিতে বলেন, ‘বাংলাদেশের আধ্যাত্মিক রাজধানী সিলেটের শাহী ঈদগাহে সিনেমার শুটিং করে ইসলাম ধর্মের প্রতি ধৃষ্টতা দেখালো একটি মহল। সিলেটের শাহী ঈদগাহ একটি ঐতিহাসিক স্থান। যেখানে প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করে প্রতিবছর লক্ষাধিক মুসল্লি ঈদের নামাজ পড়তে আসেন। বড় বড় জানাজার নামাজ শাহী ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়। এ সকল ধর্মীয় কাজ সম্পাদিত হওয়া এই ঐতিহাসিক ও পবিত্র শাহী ঈদগাহে সিনেমার শুটিং হয়েছে তা বিশ্বাস করা কঠিন হলেও একটি স্বার্থান্বেষী মহল পুলিশী প্রহরায় শুটিং করে ফেলেছে।’ বিৃবতিতে নেতৃবৃন্দ সিনেমার শুটিংকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। অন্যথায় সিলেটের ধর্মপ্রাণ মুসলমান তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন দিতে প্রস্তুত রয়েছে। এদিকে, শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনার প্রতিবাদে ও ঘটনার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে নগরীতে ইসলামী ছাত্র মজলিস সিলেট মহানগরী শাখা বিক্ষোভ মিছিল করেছে। গত বৃহস্পতিবার সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শাহী ঈদগাহে ‘ইত্তেফাক’ নামের একটি সিনেমার শুটিং হয়। এর পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় ওঠে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ