বুধবার ৩০ নবেম্বর ২০২২
Online Edition

নোয়াখালীতে বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদকসহ দেড় শত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

নোয়াখালী সংবাদাতা, ২৬ নবেম্বর : নোয়াখালী জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম চেয়ারম্যান সহ দেড় শত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে সুধারাম থানা পুলিশ। এ ঘটনায় আটককৃত তিনজনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বিএনপির দলীয় সুত্রে জানা যায়, দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির দাবীতে শনিবার সকালে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে দলটি বিক্ষোভ কর্মসূচীর আয়োজন করে। সমাবেশকে ঘিরে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে দলের নেতাকর্মীগণ মিছিল নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে সমবেত হতে থাকে। বেলা ১১টায় টাউন হল দিয়ে একটি মিছিল আসলে পুলিশ তাদের বাঁধা দেয়। এ সময় তারা শ্লোগান বন্ধ করে পায়ে হেঁটে সমাবেশস্থলে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশকে ঘিরে ফেলে পুলিশ এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর এলোপাতাড়ি লাঠিচার্জ করে। এতে অন্তত ২০/২৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ সময় জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম সহ তিনজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।  সুধারাম থানার ওসি নবীর হোসেন জানান, বিএনপি প্রেসক্লাবের সামনের সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ করার চেষ্টা করে। পুলিশ তাদের বাধা দিলে উশ্ঙ্খৃল জনতা পুলিশের উপর ঢিল ছুঁড়ে। এতে টিএসআই বাতেন সহ তিন পুলিশ আহত হয়েছে। এ ঘটনায় সুধারাম থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই বিপুল ঘোষ বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে এবং অন্যদের অজ্ঞাত দেখিয়ে দেড় শত বিএনপির নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে। আটককৃত জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার, বাসু ও রমজান আলীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
নোয়াখালী  জেলা জামায়াতের আমির মাওলানা আালাউদ্দিন ও সেক্রেটারি  মাওলানা নিজাম  উদ্দিন  ফারুক এ ঘটনার তীব্র নিন্দা  জানান এবং গ্রেফতার কৃতদের মুক্তি এবংমামলা প্রত্যাহার করার জোর দাবী জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ