শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২
Online Edition

জরিমানা দিয়ে দেশে ফিরেছেন সাইফ

স্পোর্টস রিপোর্টার : শেষ পর্যন্ত জরিমানা গুনে দেশে ফিরতে হয়েছে সাইফকে। ভারতে ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার পরও ভারতে অবস্থান করায় নিয়ম অনুযায়ী ২১,৬০০ রুপি জরিমানা গুনতে হয় তাকে। পরে তার দেশে ফেরার ব্যবস্থা করে ভারতীয় হাই কমিশন। এ ব্যাপারে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনার তৌফিক হাসান বলেন, ‘বিমানবন্দরে আসার পর সে বুঝতে পারে দুদিন আগেই ভিসার মেয়াদ ফুরিয়েছে। ফ্লাইট বুক করা থাকলেও এ জন্য সে বিমানে উঠতে পারেনি। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, তাকে জরিমানা দিতে হয়েছে। তার ভিসা করে দেশে ফেরার ব্যবস্থা করায় ভারতীয় হাই কমিশনকে ধন্যবাদ।’ প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে ডাক পেয়েছিলেন। কলকাতায় দিবারাত্রির টেস্ট দিয়ে সাইফ হাসানের আন্তর্জাতিক অভিষেকও হয়ে যেত। কিন্তু আঙুলের চোট সেটি হতে দেয়নি। 

ভারত থেকে দেশে  ফেরার সময়ও বেশ ঝামেলা পোহাতে হয়েছে তাকে। সিরিজ শেষে সতীর্থরা দেশে ফিরলেও ভিসা জটিলতায় সাইফ তাদের সঙ্গে ফিরতে পারেননি। তার ভারতীয় ভিসার ছয় মাসের মেয়াদ শেষ হয়ে যায় ২৪ নভেম্বর। ২৬ নভেম্বর দেশে ফিরতে কলকাতার সুভাষ চন্দ্র বসু বিমানবন্দরে যাওয়ার পর ব্যাপারটা বুঝতে পারেন তিনি। ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ায় সেদিন তাকে বোর্ডিং পাস দেওয়া হয়নি। 

ভারত সফরের আগে বাংলাদেশ দলের সবার ভিসা করিয়েছিল ক্রিকেট বোর্ড। তবে সাইফের ভিসা করানো হয়েছিল গত জুনে, বিসিবি একাদশের হয়ে ভারতে খেলতে যাওয়ার আগে। ছয় মাসের সেই ভিসার মেয়াদ যে ফুরিয়েছে, সেটা টিম ম্যানেজমেন্ট কিংবা সাইফের কেউ খেয়াল করেননি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ