শনিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

গু চ্ছ ছ ড়া

সাজজাদ হোসাইন খান এর ছড়া

 

নীলসবুজের হাট

একটুখানি পেরিয়ে গেলে নীলসবুজের হাট

একটুখানি পেরিয়ে গেলে লক্ষ আশার মাঠ

একটুখানি পেরিয়ে গেলে উধাও মনের ভুল

একটুখানি পেরিয়ে গেলে হাওয়ায় ওড়ে চুল।

 

একটুখানি পেরিয়ে গেলে ঝলমলানো ঘর

একটুখানি পেরিয়ে গেলে জোসনা মাখা চর।

একটুখানি পেরিয়ে গেলে শান্তি সুধার ঢল

একটুখানি পেরিয়ে গেলে খুশি যে খলখল।

 

একটুখানি পেরিয়ে যেতে দৈত্য-দানো ঝড়

আকাশ ঘিরে কালোর খেলা বজ্র কড়াৎ কড়

এইটুকু পথ পেরিয়ে গেলে আঁধার কেটে আলো

এইটুকু পথ পেরিয়ে গিয়ে আলোর মশাল জ্বালো।

 

হেমন্তরা

ঘাসের চোখে শিশির ফোঁটা নিশির ঠোঁটে তারা

সেই তারাতে ধলপরীরা ঘুরছে পাগলপারা।

হাওয়ায় যখন ঘণ্টা বাজে আকাশ থাকে নীল

লাল সুরুযের পাপড়িগুলো দিগন্তে ঝিলমিল।

 

তেপান্তরে ধানের নূপুর গানের শালিকছানা

শীতসকালের একটু বাঁয়ে দিচ্ছে কেবল হানা।

সেই হানাতে বিশ্বভুবন মেঘের ঘরে জাগে

ফুলের পাখায় গন্ধ উড়ে শুক্লাতিথি রাগে।

কাশফুলেরা হলুদ হলুদ এই বুঝি যায় পড়ে

আসমানে নাই ঝড়ের পাখি রৌদ্র থরে থরে।

 

হেমন্তেরা এমনি হাঁটে শরৎ যখন পালায়

প্রভাত আসে স্বপ্নঘোরে শিউলি ভেজা মালায়।

 

শীত

পুষ্পভেলায় চেপে

নামছে কেঁপে কেঁপে

সিমের ডগায়

গাঙে

বিশ্বজগৎ রাঙে।

 

ঠা-া ভেজা ভোরে

ধলকুয়াশা ওড়ে

বইছি ফুলে

পাতায়

হৃদয় শুধু মাতায়।

 

শিউলি ঝরে ঝুর

টুনটুনি ঘুরঘুর

বেগুন ডালে

ঘাসে

সুবাশ নাচে পাশে।

গন্ধরাজের মাথা

ঘাসফড়িঙের ছাতা

হাওয়ায় দোলে

শীতে

গন্ধমাখা চিতে।

 

শীতের পাখায় চড়ে

মাঠে তেপান্তরে

খুশির পাখি

ফুল।

খুঁশবুঁরা চুলবুল।

 

শীত এলো ঐ শীত

আনন্দ নিশ্চিত।

 

ঘুম ভাঙে রোজ

 

বেগুন ফুলে প্রজাপতির হাসি

কোথায় আছে এমন মজার বাঁশি

ভরদুপুরে রাখালিয়া বাজায় হেসে হেসে,

ধানের ক্ষেতে টিয়াপাখির মেলা

আসমানে যার নীল ধবলের ভেলা

হেলে দুলে জমায় পাড়ি, পাহাড় ঘেঁষে ঘেঁষে।

 

জোছনা মাখা চাঁদের সাদা ডিম

রাত নিশীথে ঝরায় কেমন হিম

সিক্ত করে ফুলপরীদের রঙিন যত পাখা,

অনেক ভোরে সূর্যমামা হাঁটে

উদাস করা যোজন যোজন মাঠে

সাতটি রঙের চেরাগ যেন উপর করে রাখা।

 

সরশে ফুলে হলদে হিরণ নাচে

কোন সে দেশের এমন শোভা আছে

রূপেতে যার হাজার কবি শব্দেরই জাল বোনে,

মন উড়ে যায় মাছরাঙাদের ভিড়ে

পাতার ফাঁকে টুনটুনিদের নীড়ে

ঘুম ভাঙে রোজ মুয়াজ্জিনের দরাজ গলা শুনে।

 

আকাশ

 

আকাশ সেতো উধাও উদাম

লক্ষ তারার শক্ত গুদাম

বটের বিশাল বৃক্ষ যেন

বিশ্ব-ভুবন জুড়ে।

 

আকাশ হলো মনের মিতা

হাওয়ায় ভাসা রঙিন ফিতা

হাজার কথার বাজার লয়ে

ঘড়ির কাঁটায় ঘুরে।

 

আকাশ হলো নীলের বাটি

চোখের দাওয়ায় শীতলপাটি

ছড়িয়ে দিয়ে চাঁদের মাখন

পক্ষী হয়ে উড়ে।

 

আকাশ হলো বকের বাসা

অনেক ফুলের গন্ধে ঠাসা

অন্ধকারে নাচে  আকাশ

মেঘের সুরে সুরে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ