বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
Online Edition

পেটের ভিতর ৩ হাজার ইয়াবা!

সিদ্ধিরগঞ্জ (না:গঞ্জ) সংবাদদাতা : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোড এলাকা  থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাজুল ইসলাম (৪৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। গ্রেফতারের পর তার পেটের ভিতর  থেকে ৩ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত তাজুল ইসলামের বাড়ী সোনারগাঁ থানার ভারগাঁও দরগাহ বাড়ী এলাকায়। সে দীর্ঘদিন ধরে এমন অভিনব কায়দায় পেটের ভিতর ইয়াবা ঢুকিয়ে টেকনাফ থেকে ঢাকায় নিয়ে আসত। এরপর ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে ইয়াবা পৌঁছে দিত। 

র‌্যাব-১১ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত তাজুল ইসলাম টেকনাফ হতে বাসযোগে ঢাকায় ইয়াবা নিয়ে আসার খবর তারা গোপনসূত্রে পায়। এই তথ্যের ভিত্তিতে তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চিটাগাংরোড এলাকায় একটি বাস থেকে সন্দিগ্ধ হিসেবে মোঃ তাজুল ইসলামকে আটক করে। আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাসে সে মাদক পাচারের কথা অস্বীকার করে। পরে তাকে কাঁচপুরে একটি হাসপাতালে নিয়ে এক্স-রে করে দেখা যায় তার পেটের ভিতর অসংখ্য ডি¤¦াকৃতির বস্তু রয়েছে। পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে গ্রেফতারকৃত তাজুল ইসলাম স্বীকার করে যে তার পেটের ভিতর কালো টেপ দিয়ে মোড়ানো  ছোট ছোট ১০০টি ইয়াবার পোটলা রয়েছে এবং প্রত্যেকটিতে ৩০ পিস করে মোট ৩ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি রয়েছে। ইয়াবার পোটলাগুলো সে খাবারের সাথে গিলে  খেয়ে এনেছে।

ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির অভিযোগ ১ জন গ্রেপ্তার 

প্রধানমন্ত্রীসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও পুলিশের বিভিন্ন ছবি বিকৃত করে ফেইসবুকে কটূক্তি করার অভিযোগে আমির হোসেন পাটোয়ারি (৫৭) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পুলিশ। নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক নোমান হোসেনের দায়ের করা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় গত বুধবার রাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আমির হোসেন লক্ষীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানার যাদিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদুল্লাহ পাটোয়ারীর ছেলে। সে ঢাকার মুগদা এলাকায় বসবাস করতেন। গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার এজহারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উল্লেখ করেন, আমির হোসেন তার ফেইসবুক আইডি হতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পাইনাদী এলাকার ১০ তলা বিল্ডিং সংলগ্ন এএইচ কার্গো সার্ভিস নামক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে প্রধানমন্ত্রীসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির ছবি এডিট করে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য যোগ করে শেয়ার করেন। এছাড়াও সে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়, তাঁর স্ত্রী, সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছবি এডিট করেও নানা কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে শেয়ার করেন।  প্রধানমন্ত্রী, কানাডার প্রধানমন্ত্রী, ভারতের প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তি ও পুলিশের বিভিন্ন এডিট করা আজেবাজে ছবি ও মানহানিকর পোষ্ট শেয়ার করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতরি অবনতি ঘটিয়েছেন।  

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ফারুক জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি এবং পুলিশকে কটূক্তি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে শেয়ার করার অভিযোগে আইসিটি অ্যাক্টে গত বুধবার একটি মামলা হয়েছে। মামলার প্রেক্ষিতে ওই রাতেই সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকা থেকে আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ