মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বিজিবি-বিএসএফ ভুল বোঝাবুঝি আলোচনায় শেষ হবে -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে গোলাগুলির বিষয়টিকে ভুল বোঝাবুঝি ও অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা হিসেবে বর্ণনা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, দুই বাহিনীর মহাপরিচালকদের মধ্যে আলোচনার মধ্যে দিয়েই এর সুরাহা হবে। আমরা মনে করি একটা অ্যাক্সিডেন্ট হয়েছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডে ষড়যন্ত্রকারীদের নাম উন্মোচনে শিগগিরই উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন কমিশন গঠন করা হবে যেন, তরুণ প্রজন্ম যুগ যুগ ধরে ইতিহাসে ষড়যন্ত্রকারীদের চিনতে পারে।
গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন বক্তব্য দেন।
সভার আয়োজক সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীলের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক হারুন উর রশিদ আসকারী, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ, শহীদকন্যা ডা. নুজহাত চৌধুরী প্রমুখ।
এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেখুন এটা একটি অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা। বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে একটি চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে। হঠাৎ করে এই অ্যাক্সিডেন্টটা...আমরা সবাই মর্মাহত হয়েছি।
আরেক প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান খান বলেন, কুমিল্লা সীমান্তে র‌্যাব টহল দিতে গিয়ে ভারতীয় সীমান্তে ঢুকে যায়। ফলে, অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটে। ভারতের সঙ্গে আমাদের চমৎকার সম্পর্ক। আমরা বসেই সন্তোষজনক সমাধান করবো।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই জানেন আমাদের মাছ ধরার জন্য ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। বিজিবি ও মৎস্য অধিদফতর যৌথ টহল দিচ্ছিল, সেই সময় তারা দেখে একটা নৌকায় করে কিছু সংখ্যক জেলে মাছ ধরছে। তাদের চ্যালেঞ্জ করলে জানা যায়, তারা ভারতীয় জেলে। তাদেরকে যখন আটক করা হয় তখন তাদের কয়েকজন বিএসএফকে খবর দিলে তারা সেখানে চলে আসে। সেখানেই ভুল বোঝাবুঝি হয়। তিনি বলেন, পদ্মায় ভারতীয় জেলেদের ইলিশ ধরা নিয়ে জটিলতার পর যে বিএসএফ সদস্যরা এসেছিল, তারা পতাকা বৈঠকের অপেক্ষা না করে চলে যাওয়ার সময় উভয়পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে এবং তাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর একজন সদস্য নিহত হন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি কিন্তু বারবার বলেছি যে, আমরা খুব শিগগিরই একটা নির্ভুল চার্জশিট দিব, যাতে করে বিচার বিভাগের কাছে কোনো প্রশ্ন আর থাকবে না। নির্ভুল চার্জশিট দেওয়ার জন্যই পুলিশ কর্মকর্তারা এটার ব্যবস্থা নিচ্ছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ