শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

গাজীপুরে স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মজলিশপুর এলাকায় চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল মর্গে পাঠিয়েছে।
নিহত অন্তর (১২) নরসিংদীর স্বপন চন্দ্র দাসের ছেলে। তাদের বাসা মজলিশপুর এলাকায়। অন্তরের বাবা স্বপন চন্দ্র দাস মাছ ধরে বিক্রি ও ট্রাকের হেলপার হিসেবে কাজ করে।
নিহত অন্তর লাঠিভাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল। এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনরা জানায়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর অন্তরসহ দুই-তিন জন শিশু মিলে মজলিশপুর ভগমানের টেক এলাকায় নিখিলের বাগানে যায়। সেখানে একটি গাছ থেকে তারা অরবড়ই ছিঁড়ে খায়।
এ সময় এক ব্যক্তি তাদের ধাওয়া করে অন্তরকে আটক করে এবং অন্য দুই শিশু পালিয়ে যায়। এক পর্যায়ে ঐ ব্যক্তি অন্তরকে মারধর করে ছেড়ে দেয়। পরে অন্তর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হয়। এরপরও তার অবস্থার অবনতি হলে অন্তরকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সন্ধ্যায় অন্তর মারা যায়।
পরে নিহতের স্বজনরা মরদেহ মজলিশপুর এলাকায় তাদের বাসায় নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঐ বাসা থেকে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে নিয়ে যায়। গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ