শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

অনেক কিছু দিয়ে দিলেন, আর ফিরে আসলেন খালি হাতে

স্টাফ রিপোর্টার: ভারতের সঙ্গে চুক্তি, বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদ এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে দলটির ঢাকা মহানগর উত্তর শাখা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও দলীয় অফিসের কাছে গিয়ে মিছিল শেষ হয়।

পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বার্থ শেখ হাসিনা বিক্রি করবেন এটা হতে পারে না।’ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, “তাহলে ভারত থেকে কী কী নিয়ে আসলেন? জনগণ প্রত্যাশা করেছিল ‘ভারতকে সারাজীবন মনে রাখার মতো’ আপনার দেওয়া ট্রানজিট, বাণিজ্য, কানেকটিভিটি, সাত রাজ্যের নিরাপত্তা, নদী, সমুদ্র, বন্দর, সুন্দরবন, প্রতিরক্ষা, বৃহত্তম রেমিট্যান্স, অবাধ রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রণের বিপরীতে আপনি প্রতিবারের মতো এবারও হয়তো খালি হাতে ফিরবেন না।”

তিনি বলেন, ‘সব প্রধানমন্ত্রীই বিদেশ সফরে কিছু না কিছু আনতে যান। আর আমাদের প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে গিয়ে সবকিছু উজাড় করে দিয়ে আসেন। প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে গেলেই দেশের মানুষের উদ্বেগ বেড়ে যায়। এবারও আপনি দেশের অনেক কিছু দিয়ে দিলেন, আর ফিরে আসলেন খালি হাতে।’

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, ‘ভারতকে আমাদের উপকূলে নজরদারির জন্য ২০টি রাডার স্থাপনের অনুমতি দেওয়া হলো। তাতে আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আমাদের আঞ্চলিক সংঘাতের বলি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। স্বাধীন দেশের সমুদ্রবন্দর, ফেনী নদীর পানি, উপকূলে ভারতের নজরদারির জন্য ২০টি রাডার স্থাপন এবং জ্বালানি সংকটের এই দেশের গ্যাস অন্য দেশের হাতে তুলে দেওয়া হলো। এটি সম্পূর্ণভাবে জাতীয় স্বার্থবিরোধী চুক্তি এবং সুস্পষ্টভাবে সংবিধান লঙ্ঘন।’

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত মিছিলে অংশ নেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন মতি প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ