শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

আইন না মেনে প্রতি বছর বাড়িভাড়া বাড়াচ্ছে ঢাকার বাসা মালিকরা

স্টাফ রিপোর্টার: আইন না মেনে ঢাকার বাসা মালিকরা প্রতি বছর বাড়িভাড়া বৃদ্ধি করায় ভাড়াটিয়াদের নাভিশ্বাস উঠেছে। এমন অভিযোগ করেছে ভাড়াটিয়া পরিষদ নামক একটি সংগঠন।
গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর তোপখানা রোডের নির্মল সেন হলে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক খাতুনে জান্নাত ফাতেমা খানম, সদস্য মোহাম্মদ মোস্তফা, শামিম আহমেদ, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।
সংগঠনের সভাপতি বাহরানে সুলতান বাহার বলেন, প্রচলিত আইন থাকলেও বাড়ি মালিকরা তা মানেন না। তারা তাদের খেয়াল খুশিমতো প্রতি বছর ভাড়া বাড়ান। এ বিষয়টি ভাড়াটিয়াদের নাভিশ্বাসে পরিণত হয়েছে। বাড়ি মালিকদের আচরণেও ভাড়াটিয়ারা নাজেহাল হন। এতে ভাড়াটিয়ারা মানবেতর জীবনযাপন অতিবাহিত করতে বাধ্য হচ্ছেন। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের সঙ্গে বাড়িভাড়া বাড়ানো হয়। এর সঙ্গে বাড়িভাড়া বাড়ানোর কোনো যৌক্তিক সম্পর্ক নেই।
সাংবাদিক সম্মেলনে সাত দফা দাবি তুলে ধরা হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-সরকার বা সিটি কর্পোরেশন নির্ধারিত ভাড়া বাসার প্রতিটি গেটে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। সিটি কর্পোরেশন প্রকৃত ভাড়া জেনে হোল্ডিং ট্যাক্স নির্ধারণ ও আদায় করবে। বাড়িভাড়ার অবশ্যই চুক্তি থাকতে হবে। গ্যাস, পানি কিংবা বিদ্যুৎ সংযোগে কোনো অনিয়ম করা যাবে না। ব্যাচেলরদের জন্য ৩০ শতাংশ বাসা সংরক্ষণ করতে হবে এবং ভাড়াটিয়ার স্বার্থ সংরক্ষণে জনপ্রতিনিধিদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ