শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে -আইনমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা : আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। তাদেরকে উপযুক্ত শাস্তি দেয়া হবে।
তিনি গতকাল মঙ্গলবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন চত্বরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।
এ সময় আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক আরো বলেন, আবরারের হত্যা ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক এবং মর্মান্তিক। এ ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের উদ্দেশ্য যা-ই থাকুক না কেনো তাদেরকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। তাদেরকে উপযুক্ত শাস্তি দেয়া হবে।
আবরার হত্যাকান্ড নিয়ে বিএনপি নেতাদের দেয়া বক্তব্য সম্পর্কে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, বিএনপির দায়িত্বজ্ঞানহীন নেতারা সব দুর্ঘটনায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, বিএনপির নেতাদের কর্মকাণ্ড দেশবাসী জানেন। ওনারা যে  বেসুরা গান গাচ্ছেন তাতে জনগণ কান দেবেন না। তিনি বলেন, আমরা দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি। শেখ হাসিনা দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। আর বিএনপি এই শাসন নষ্ট করেছিল।
এ সময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূইয়া, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রাশেদুল কাউসার জীবন, আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদীন প্রমুখ। এর আগে সকাল সোয়া দশটায় আন্তঃনগর মহানগর এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকা থেকে আখাউড়ায় এসে পৌঁছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।
পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পানিতে ডুবে ওসমান মিয়া নামে দেড় বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার বিকালে উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়নের কুন্ডা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশু ওসমান মিয়া কুন্ডা গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে।
পরিবারের লোকজন জানান, সোমবার বিকেলে বাড়ির লোকদের অজান্তে বাড়ির পাশে ডোবার পানিতে ডুবে যায় ওসমান। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ