শনিবার ০৮ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মেয়ের উত্ত্যক্তের ঘটনায় বাবা খুন, ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ২

কাজীপুর সংবাদদাতা: সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে কলেজছাত্রীর বাবা খুনে আটক সাময়িক বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আমিনুল ইসলামকে বৃহস্পতিবার বিকেলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। কারাগারে পাঠানোর আগে বিচারিক হাকিম আদালতে তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেওয়ার কথা থাকলেও অজ্ঞাত কারণে সেটি আর সম্ভব হয়নি। আটক হওয়ার পর বুধবার রাতে কাজীপুর থানা পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজের অপরাধ স্বীকার করেন তিনি। বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে আমিনুলকে হাজির করা হলেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার রিমান্ডের আবেদন করেনি পুলিশ। এদিকে, মাধ্যমিক স্তরে গৃহ ও কোচিং শিক্ষক হিসেবে পড়ানোর সময় ছাত্রলীগ নেতা আমিনুল মেয়েটির কিছু আপত্তিকর ছবি মোবাইলে ধারণ বা ভিডিও করেন। সেই ছবির সুযোগ নিয়ে প্রায়ই মেয়েটিকে ব্ল্যাকমেইল করে অনৈতিক সুবিধা নিত আমিনুল। তবে মামলায় মেয়েটিকে শুধু উত্ত্যক্ত, বাবাকে মারধর ও খুনের বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। আপত্তিকর ছবি দিয়ে ব্ল্যাকমেইলের বিষয়টি শুরু থেকেই অজ্ঞাত কারণে আড়াল করা হয়েছে মামলার এজাহারে। কাজীপুর থানার ওসি লুৎফর রহমান বলেন, 'বৃহস্পতিবার আমিনুলকে আদালতে হাজির করা হলেও তাৎক্ষণিক তার রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হয়নি। আমিনুলের সহযোগী নাসির নামে আরেক অপরাধীকে বৃহস্পতিবার ধরা হয়েছে। আমিনুল, নাসিরসহ দু'জনকে আগামীতে আদালতের মাধ্যমে কাজীপুর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হচ্ছে।শনিবার রিমান্ডের আবেদনটি আদালতে জমা দেওয়া হবে।' প্রসঙ্গত বুধবার দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে সিরাজগঞ্জ-কাজীপুর আঞ্চলিক সড়কের পাটাগ্রাম এলাকায় মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করে আমিনুল ও তার দলবল। মেয়েটির বাবা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিবাদ করলে তাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। সন্ধ্যায় কাজীপুর উপজেলা কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ