মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে যুবকের মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মো. আইয়ূব (২৬) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার গভীর রাত আড়াইটার দিকে নগরীর চান্দগাঁও থানার বাহির সিগন্যাল বড়ুয়াপাড়া এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা। ওই যুবক পেশাদার ছিনতাইকারী এবং পাঁচদিন আগে সংঘটিত একটি হত্যাকান্ডে জড়িত ছিল জানিয়েছে পুলিশ। বন্দুকযুদ্ধে নিহত আইয়ূব চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার পশ্চিম কুয়াইশ গ্রামের মো. সোলায়মানের ছেলে।
চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, গত ২৫ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে কালুরঘাট ভারী শিল্প এলাকায় বেইস টেক্সটাইল ও ক্লিফটন গার্মেন্টস কারখানার সামনে বাচ্চু হাওলাদার নামে এক ব্যক্তি ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন। ছিনতাইকারীরা তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ও নগদ সাড়ে ৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। এসময় ধস্তাধস্তিতে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে বাচ্চু মারা যান। বাচ্চু কেডিএস গ্রুপের কারখানায় নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি বলেন, ছিনতাইয়ের সময় খুনের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলা তদন্তে আমরা আইয়ূবের সম্পৃক্ততার বিষয় জানতে পারি। এরপর থেকে আমরা তাকে গ্রেফতারের জন্য খুঁজতে থাকি। রোববার রাতে আইয়ূব ও তার সহযোগীরা বাহির সিগন্যালের বড়ুয়াপাড়া এলাকায় আসে। খবর পেয়ে আমরা গ্রেফতারের জন্য গেলে তারা আমাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। আমরাও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে ছিনতাইকারীরা পিছু হটে। ঘটনাস্থল থেকে আইয়ূকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধারের পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি ও ৬ রাউন্ড কার্তুজ এবং ছোরা ও কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে। আইয়ূব পেশাদার ছিনতাইকারী দলের নেতা। তার বিরুদ্ধে নগরীর চান্দগাঁও এবং জেলার হাটহাজারী থানায় ছিনতাই ও ডাকাতির অভিযোগে একাধিক মামলা আছে। বন্দুকযুদ্ধে চান্দগাঁও থানার ৬ জন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ