বুধবার ২০ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

মাওলানা মুহাম্মদ আবদুর রহীম (রহ) এর ৩২তম ওফাত বার্ষিকী আজ

আজ ১ অক্টোবর উপমহাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ইসলামী চিন্তাবিদ, সাহিত্যিক, রাজনীতিবিদ, সাবেক সংসদ সদস্য, ইসলামী আন্দোলনের সিপাহসালার, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা মুহাম্মদ আবদুর রহীম (রহ)-এর ৩২তম ওফাত বার্ষিকী। ১৯৮৭ সালের এই দিনে তিনি ইন্তিকাল করেন। মাওলানার শতাধিক মৌলিক ও অনুবাদ গ্রন্থের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিবার ও পারিবারিক জীবন, ইসলামে অর্থনীতি, ইসলামে জিহাদ, সুন্নাত ও বিদআত, আল কুরআনের আলোকে উন্নত জীবনের আদর্শ, আল কুরআনে শিরক ও তাওহীদ, আল কুরআনে রাষ্ট্র ও সরকার, হাদীস সংকলনের ইতিহাস, ইসলামে হালাল হারামের বিধান, যাকাত বিধান, আহকামুল কুরআন।
কর্মসূচি : মাওলানা আবদুর রহীম (রহ) এর ৩২তম ওফাত বার্ষিকী উপলক্ষে, ইসলামী ঐক্য আন্দোলন, জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়া ও ইসলামী ছাত্রশক্তি ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ১ অক্টোবর সকাল ৮ টায় আজিমপুরে কবর জিয়ারত, এদিনই বাদ আসর কুরআনখানী জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়া কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে। ৪ অক্টোবর শুক্রবার বিকাল ৩.৩০ টায় জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে (৩য় তলা) ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে জাতীয় ইসলামী নেতৃবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, সাংবাদিক, আইনজীবী ও ব্যবসায়িক ব্যক্তিগণ উপস্থিত থাকবেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারি জেনারেল ড. মুহাম্মদ এনামুল হক আজাদ সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।
মরহুমের বর্নাঢ্য জীবনী : ১৯১৮ সালে ইংরেজী ২রা মার্চ, পিরোজপুরের কাউখালিস্থ শিয়ালকাঠি গ্রামে জন্মগ্রহণ। ১৯৩৮ সালে শর্ষিণা আলীয়া মাদরাসা হতে আলিম পাস। ১৯৪০ সালে কোলকাতা আলীয়া মাদরাসা থেকে ফাযিল পাশ। ১৯৪২ সালে উক্ত মাদরাসা হতে প্রথম শ্রেণিতে টাইটেল পাশ। ১৯৪৩-৪৫ সালে কোলকাতা মাদরাসায় কুরআন ও হাদীস সম্পর্কে গবেষণার কাজ সম্পাদন। ১৯৪৫-৪৭ বরিশালের রঘুনাথপুর (নাজিরপুর) হাই মাদরাসায় হেড মাওলানার দায়িত্বপালন। ১৯৪৭-’৪৮ কেউন্দিয়া (কাউখালী) হাই মাদরাসায় হেড মাওলানার দায়িত্ব পালন। ১৯৪৮-’৪৯ পাকিস্তানের আদর্শ প্রস্তাব আন্দোলনে অংশগ্রহণ।
১৯৪৯-’৫০ বরিশাল থেকে সাপ্তাহিক ‘তানজীম’ পত্রিকা সম্পাদনা করেন। ১৯৫৬ সাপ্তাহিক জাহানে নও প্রকাশনা ও পরিচালনা। ১৯৫৯-’৬০ দৈনিক নাজাতের জেনারেল ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন। ১৯৫৫ থেকে ১৯৬৮ পূর্ব পাকিস্তান জামায়াতে ইসলামীর আমীর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৬ সালে আইডিএল প্রষ্ঠিতা করেন। আবদুল আজিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত প্রথম বিশ্ব ইসলামী শিক্ষা সম্মেলনে যোগদান। ইসলামিক ফাউন্ডেশন গবেষণাকর্ম পুরষ্কার লাভ। ১৯৭৭ মক্কায় রাবেতা আল আলম আল ইসলামীর সম্মেলনে যোগদান। ১৯৭৮ কুয়ালালামপুর প্রথম দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় ইসলামী দাওয়াত সম্মেলনে যোগদান। ১৯৭৮ করাচীতে অনুষ্ঠিত রাবেতার প্রথম এশীয় ইসলামী সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বদান। ১৯৭৯ দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ এবং সংসদে আইডিএল পার্লামেন্টারি গ্রুপের নেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন। ১৯৮০ কলম্বোতে অনুষ্ঠিত আন্তঃপার্লামেন্টারি সম্মেলনে যোগদান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ