সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

কানাডা ওপেন তায়কোয়ানদো চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার: ‘কানাডা ওপেন তায়কোয়ানদো চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে মন্ট্রিল যাচ্ছে ১২ সদস্যের দল বাংলাদেশ দল। আগামী ২ থেকে ৬ অক্টোবর কানাডার মন্ট্রিলে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্টিত হবে। খেলাটির সাথে সম্পৃক্ত না হলেও বাংলাদেশ তায়কোয়ানদো দলের ম্যানেজার হিসেবে কানাডা যাওয়ার তালিকায় আছেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক যুগ্ম সচিব।বিভিন্ন ক্রীড়া দলের সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর নতুন কিছু নয়। ফেডারেশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত না হয়েও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কর্মকর্তারা ঢুকে পড়েন বিদেশগামী বিভিন্ন ক্রীড়া দলে।

ক্রীড়া দলের সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ যেন দিনদিন বেড়ে যাচ্ছে।এ সফরগুলো বেশি হচ্ছে ছোট ছোট খেলায়। সাধারণত যে সব খেলার বিদেশ সফর ও কোথায় কি টুর্নামেন্ট তা নিয়ে মানুষের কোনো আগ্রহ নেই। আলোচনার বাইরে থাকা এই খেলাগুলোর বিদেশে কোনো প্রতিযোগিতা হলে সেখানে দলের সঙ্গে ঢুকে পড়েন সরকারি কর্মকর্তারা। দু-একটা জানা যায়, বেশিরভাগই থাকে অজানা।সম্প্রতি ব্রীজ বিশ্বকাপ খেলতে চীনগামী ব্রিজ দলের সঙ্গে একজন যুগ্ম সচিব, একজন উপসচিব এবং সচিবের পিএস এর নাম থাকাটা আলোচনায় এসেছিল। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা কেমন পারফরম্যান্স করেন তা পর্যবেক্ষণের জন্য তারা চীন যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। মিডিয়ায় খবর প্রকাশ হলে অনেকে যাননি।

এবার কানাডাগামী তায়কোয়ানদো দলের সঙ্গে নাম আছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক যুগ্ম সচিব ওমর ফারুকের। এ বিষয়ে মিডিয়াকে দেয়া সাক্ষাতকারে বাংলাদেশ তায়কোয়ানদো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রানা বলেছেন, ‘আমাদের দলের ম্যানেজার হচ্ছেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. ওমর ফারুক।’মো. ওমর ফারুক তো তায়কোয়ানদো ফেডারেশনের কেউ নন। তাহলে তিনি কেন ম্যানেজার? জবাবে মাহমুদুল ইসলাম রানা বলেন, ‘ওনাকে ম্যানেজার বানিয়েছি আমাদের পক্ষ থেকে। তাছাড়া ম্যানেজার যে কোনো লোক হতে পারেন। উনি যেতে ইন্টারেস্টেড ছিলেন। তিনি বলেছিলেন, তাকে দলের ম্যানেজার হিসেবে নেয়া যায় কি না। আমরা সেটা মিটিংয়ে প্রস্তাব করি। তারপর আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

বাংলাদেশ তায়কোয়ানদো ফেডারেশন সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রানা নিজেই দলের কোচ। খেলোয়াড় আছেন ১০ জন। এর মধ্যে পাঁচজন নারী। খেলোয়াড়রা হলেন- হাবিবুর রহমান, মাসুদ খান, আবদুল্লাহ আল নোমান, উজ্জ্বল কুমার দেব, রুমকী সিদ্দিকা, আনোয়ারা বেগম, শিউলি আক্তার, কাজী মাহবুবা বানু, মির্জা ফারুক নাঈম ও উইদাত আকবর সোনিয়া।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ