রবিবার ১৭ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

আইএসের ভিডিওর টয়গানের সঙ্গে ফতুল্লার ‘টয়গানের’ অনেকটা মিল

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ( সিটি ) প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার একটি বাসায় অভিযানের পর সেখান থেকে উদ্ধার হওয়া টয়গানের (খেলনা অস্ত্র) সঙ্গে প্রকাশিত একটি ভিডিওর তরুণদের হাতে থাকা টয়গানের অনেকটা মিল আছে। গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটার কিছু আগে অভিযান শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।
কয়েক মাস আগে আইএস এই ভিডিও প্রকাশ করে। সেখানে তরুণদের হাতে এ ধরণের খেলনা অস্ত্র দেখা যায়। এ বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করলে মনিরুল ইসলাম এ কথা বলেন।
মনিরুল বলেন, রোববার রাতে ঢাকা থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁর বক্তব্যের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের একটি বাড়ি থেকে আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যন্ত্রকৌশল বিভাগের শিক্ষক ফরিদউদ্দিন রুমিকে (২৭) গ্রেপ্তার করা হয়। সেখান থেকে রুমির স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। তবে তাঁর সম্পৃক্ততা সম্পর্কে পুলিশ নিশ্চিত না। আর ফরিদউদ্দিনের ছোট জামালউদ্দিন পলাতক আছেন।
মনিরুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি ঢাকায় পুলিশের ওপর কয়েকটি হামলায় বোমার যেসব উপাদান ছিল সেসব উপাদান, টয়গান ও ভেস্ট নারায়ণগঞ্জের এই বাড়িতে পাওয়া গেছে। পুলিশ মনে করছে, তাঁরা আলাদা কোনো সংগঠনের এবং অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী। তাঁরা হামলার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের সঙ্গে জড়িত। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কয়েক মাস আগে আইএসের একটি ভিডিও প্রকাশিত হয় যেখানে কয়েকজন তরুণের হাতে টয়গান ছিল। ওই টয়গানের সঙ্গে এ বাড়িতে পাওয়া টয়গানের অনেকটা মিল রয়েছে।
গতকাল পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল সেখানে চারটা বোমা নিষ্ক্রিয় করেছে। চারটিই শক্তিশালী ছিল। তার মধ্যে ফ্রিজে থাকা যে বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়, সেটাতে বিকট আওয়াজ হয়।
নারায়ণগঞ্জের ফতুরøার বাড়িতে গতকাল অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও বোমা তৈরির সামগ্রী উদ্ধারের দাবি করেছে পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ