শুক্রবার ২৭ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

ড্রেজার মেশিনসহ সকল সরঞ্জামাদি আগুনে পুড়িয়ে ছাই

নেত্রকোনা সংবাদদাতা, ১১ সেপ্টেম্বর: নেত্রকোনায় কংস নদীতে অবৈধ ভাবে  বালু উত্তোলনের দায়ে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। রবিবার সকালে জেলা প্রশাসনের একটি টিম আকস্মিকভাবে ভ্রাম্যমাণ এ মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় সদর উপজেলার বড়ওয়ারী এলাকায় কংস নদী থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। হাতেনাতে প্রমাণ পাওয়ায় ঘটনাস্থলেই বালু উত্তোলনকারী সদর উপজেলার মঈনপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আবুল ফাতাহকে নগদ ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় অনাদায়ে ৩ তিন মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত। পরে বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ড্রেজার মেশিন সহ সকল সরঞ্জামাদি আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়। এদিকে অভিযানের খবর পেয়ে অন্যান্য বালু উত্তোলনকারীরা ছটকে পরে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ অভিযান পরিচালনা করেন নেত্রকোনা সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বুলবুল আহমেদ। এ সময় জেলা প্রশাসনে বিভিন্ন পর্যায়ে কমকর্তাসহ পুলিশ প্রশাসনের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন। ম্যাজিস্ট্রেট বুলবুল আহমেদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে কংস নদীর বিভিন্ন এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল একটি স্বার্থান্বেষী মহল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে আজ সকালে বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় হাতেনাতে প্রমাণ পাওয়া আবুল ফাতাহকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা সহ সকল সরঞ্জামাদি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। সেই সাথে উত্তোলিত বালু জব্দ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ