শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

এবারের বিপিএল আয়োজন হবে বঙ্গবন্ধুর নামে

 

স্পোর্টস রিপোর্টার : নতুনভাবে শুরু হচ্ছে এবারের বিপিএল। ঘোষণা অনুযায়ী এবারের বিপিএল উদ্বোধন হবে ৩ ডিসেম্বর আর খেলা শুরু ৬ ডিসেম্বর থেকে। নতুন ধারায় এবারের বিপিএলে কোনও মালিকানা থাকছে না। ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবে বিসিবি, নামকরণও করা হয়েছে এই টুর্নামেন্টের। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এবারের আসরটি তার নামে করা হচ্ছে। গতকাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে এ তথ্য জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। ২০১৮ সালের বিপিএল বিভিন্ন কারণে আয়োজন করতে হয়েছে চলবি বছরের শুরুতে। আবার এ বছরই আরেকটা বিপিএল আয়োজন নিয়ে কয়েকটা ফ্রাঞ্চাইজি আপত্তি তুলেছিল। একই সঙ্গে বিসিবিও জানিয়েছে, পুরনো চুক্তি শেষ। নতুন করে মালিকানা চুক্তি করতে হবে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোকে। এসব নিয়েই তৈরি হয়েছে নানা জটিলতা। শেষ পর্যন্ত গতকাল বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, নির্ধারিত সময়েই বিপিএল আয়োজন করা হবে। কিন্তু আগের ছয় আসরের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক নয়, এবারের বিপিএল পরিচালনা করবে বিসিবিই। সেই সঙ্গে এবারের বিপিএল আয়োজন করা হবে বঙ্গবন্ধুর নামে। বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গ করা হবে এবারের বিপিএল। আসরের আনুষ্ঠানিক নাম হবে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল।’ নতুনত্ব থাকায় আগামী আসরে অবশ্য একই নিয়মে হবে না বিপিএল। এর উত্তরও পাওয়া গেলো তার কথা  থেকে, ‘আগামীতে কী হবে সেটা ভেবে দেখা হবে।’ অবশ্য বিসিবির অধীনে সব কিছু থাকলেও ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক সকল কিছু একই থাকবে টুর্নামেন্টে। তবে সবগুলো দলের খরচ বহন করবে বিসিবি। এই নিয়মে তাদের তত্ত্বাবধানে দল থাকবে, তারা চাইলে বিদেশ থেকে কোচ ও বিদেশি খেলোয়াড়ও আনতে পারবে। নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, ‘এবারের আসরে বিপিএলের সমস্ত খরচ বহন করবে বিসিবি। সাতটি দল নিয়ে টুর্নামেন্টটি বঙ্গবন্ধু বিপিএল নামে শুরু হবে নির্ধারিত সময়ে।’ একই বছর দুটি বিপিএল- এ নিয়ে নানা গুঞ্জন আর প্রশ্ন উঠেছিল। কয়েক দিন ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এ বছর বিপিএল অনুষ্ঠিত হবে কি না। কিন্তু বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, এ বছর বিপিএল নির্ধারিত সময়েই হবে। তবে টুর্নামেন্টটি ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক হচ্ছে না। টুর্নামেন্টের নাম হবে, ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। পুরো টুর্নামেন্ট এবং ফ্রাঞ্চাইজির মালিক যদি বিসিবিই হয়, তাহলে দল এবং টুর্নামেন্ট ব্যবস্থাপনা কীভাবে হবে? সে ব্যাপারগুলোও খোলাসা করে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। তিনি বলেন, ‘এবারের বিপিএলটা আমরা বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করব। টুর্নামেন্ট তার নামেই হবে। সব দলই ঠিক থাকবে, শুধু ম্যানেজমেন্টের অংশ বিসিবি দেখবে। খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক, থাকা-খাওয়া, যাতায়াত সবই বিসিবি তত্ত্বাবধান করবে। এতে আশা করি সবাই খুশি হবে। অনেকটা বিগ ব্যাশের মতো।’ এবার বিসিবিই হবে সব দলের মালিক। তবে কেউ যদি কোনো দলকে স্পন্সর করতে চায়,  সে সুযোগ থাকবে। আগের মতোই খেলোয়াড় নিলাম হবে। টুর্নামেন্ট শুরু হবে নির্ধারিত সময়ে। কোচিং স্টাফসহ সব কর্মকর্তা নিয়োগ দেবে বিসিবি। যদি কোনো দলকে কেউ স্পন্সর করে এবং তারা নিজেদের পছন্দমতো বিদেশি খেলোয়াড় আনতে চায়, তাতে বাধা থাকবে না। বিসিবি সভাপতির সাফ কথা, বিপিএল ফ্রাঞ্চাইজিগুলো যে শর্ত দিয়েছে, তাতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে সেগুলো পূরণ করা সম্ভব নয়। যে কারণে কারো সঙ্গেই বিসিবি চুক্তি করবে না এবং ঝুঁকি সত্ত্বেও নিজেদের টাকা খরচ করেই এবার বিপিএল আয়োজন করতে চায় তারা। নিজেদের আয়োজন এবং মালিকানায় অনুষ্ঠিতব্য টুর্নামেন্টটির নামকরণ করা হচ্ছে, ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ