সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

সিলেটে ধর্ষণ মামলার আসামী গুলীবিদ্ধ

সিলেট ব্যুরো : সিলেটে ওসমানীনগর উপজেলায় ধর্ষণ মামলার আসামীকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসার সময় গোলাগুলীতে আসামীসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। আসামী খোকন মিয়া (২৮) নামের যুবককে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টাকালে সোমবার ভোররাতে উপজেলার বড় ইউসুফপুর গ্রামে পুলিশের সাথে গোলাগুলীতে গুলীবিদ্ধ হন ওই আসামী।
ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল মামুন জানান, গতকাল বড় ইউসুফপুর গ্রাম থেকে খোকনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসার পথে ১৫/২০ জন লোক পুলিশের গাড়ি থামিয়ে আসামী ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ শটগানের গুলী ছুড়লে খোকন গুলীবিদ্ধ হয়। পুলিশের এক এসআই ও দুই কনস্টেবলও আহত হয়েছেন। খোকনকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, খুলনায় বিয়ের আশ্বাসে এক নারীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করেন চালক খোকন। বিষয়টি প্রতারণা বুঝতে পেরে ওই নারী বিয়ের জন্য চাপ দেন। এ নিয়ে খোকনের সঙ্গে তার মনোমালিন্য হয়। এরপর গত ১০ আগস্ট ওই নারীর মেয়েকে বিয়ের আশ্বাস দেখিয়ে সিলেট নিয়ে আসে খোকন। ওসমানীনগরে বড় ইউসুফপুর গ্রামের এক প্রবাসীর বাসায় রেখে তাকে ধর্ষণ করেন। ওই বাসায় খোকনের বাবা জাহাঙ্গীর কেয়ারটেকার হিসেবে থাকতেন। পরে জাহাঙ্গীরের মোবাইল দিয়ে ওই মেয়ে তার মাকে বিষয়টি জানান। গত শনিবার ওই মেয়ের মা সিলেটে এসে মামলা করেন।
ওসি বলেন, এ ঘটনায় একটি অ্যাসাল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। খোকনের বাবা জাহাঙ্গীরকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে কিশোরীকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান তিনি। খোকন পেশায় এজন ট্রাকচালক। সে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার ধননগর গ্রামের বাসিন্দা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ