সোমবার ৩০ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

ফিলিস্তিনী শিশুরা ইসরাইলে পাশবিক নির্যাতনের শিকার

২৯ আগস্ট, মিডল ইস্ট মনিটর : চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে নারী ও শিশুসহ ১ হাজার ৬০০ জন ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে ইসরাইল। তাদের মধ্যে ২৩০ জন শিশু ও অন্তত ৪০ জন নারী। এই আটক অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

লন্ডনভিত্তিক সংবাদ পর্যবেক্ষণ সংস্থা মিডল ইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি ফিলিস্তিন লিবারেশন অর্গানাইজেশনের (পিএলও) পাবলিক ডিপ্লোমেসি ও পলিসি বিভাগের পক্ষ থেকে এই হিসাব দেয়া হয়েছে।

চলতি বছরের শুরু থেকে ইসরাইল যেসব ফিলিস্তিনীদের আটক করেছে তাদের মধ্যে ৫শ জনকে প্রশাসনিকভাবে আটক করা হয়েছে। যার ফলে কোনো অভিযোগ কিংবা বিচার ছাড়াই তাদেরকে বছরের পর বছর আটক করে রাখতে পারবে ইসরাইল।

পাবলিক ডিপ্লোমেসি ও পলিসি বিভাগের সম্প্রতি প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গত বছর ৩ হাজার ২৫৫ জন ফিলিস্তিনি শিশুকে আটক করেছে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ। যাদের বয়স ১২ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে।

জেরুজালেম পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইসরাইলে যেসব শিশু আটক রয়েছে তাদের মধ্যে ৭০ শতাংশ সহিংসতা, ধর্ষণ, যৌনাঙ্গ কর্তন, যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ খাবার না পাওয়ার মতো নানারকম নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।

ইসরাইলের ওই দৈনিকটি বলছে, ‘কারাবন্দী এসব শিশুর ৭৫ শতাংশের বেশি শিশুকে চোখ বেঁধে নানাভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে। ফিলিস্তিনি কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে ১৮ এপ্রিল এই প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়।

ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র ও প্রবাসী মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘আজকের এই দিনে ফিলিস্তিনের নাগরিকরা সেসব মানুষকে সম্মান জানাচ্ছে যারা স্বাধীনতার জন্য পাশবিক নির্যাতন ও অবিচার সহ্য করেও ফিলিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠান নিজেকে বিসর্জন দিয়েছেন। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ