বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১
Online Edition

রাজধানীতে ৬ তলা ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে নববধূর আত্মহত্যা 

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ৬ তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে ফারহানা (১৮) নামে নববিবাহিত গৃহবধূর আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। শনির আখড়া দক্ষিণ শেখদী জামে মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় তার বাবার ভাড়া বাসায় বুধবার (২৮ আগস্ট) রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া এ তথ্য জানান। মুমূর্ষু অবস্থায় ফারহানাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত পৌনে ১০টায় মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা মো. বকুল মিয়া জানান, ঈদুল আজহার আগে একই এলাকার বাসিন্দা জুয়েল নামে এক ছেলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেওয়া হয় ফারহানাকে। দুই দিন আগে শ্বশুরবাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে ফারহানা। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে, ছাদের চাবি নিয়ে উপরে যায় ফারহানা। বিকট শব্দ শুনে লোকজন এগিয়ে গিয়ে দেখতে পায়, ফারহানা নিচে পড়ে আছে। কিছুক্ষণ পর তিনি সংবাদ পান, ফারহানা ছাদ থেকে নিচে পড়ে গেছে। 

তার বাবার ধারণা, ফারহানা লাফিয়ে পড়ে মারা গেছে। তিনি আরও বলেন, ‘ফারহানা আমাদের বিভিন্ন সময়ে বলেছিল, বিয়েয়র পর থেকে তার সংসারজীবন ভালো লাগছিল না। সে আগেই ভালো ছিল।’

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বলেন, ‘লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট থানাকে অবহিত করা হয়েছে।’

ফারহানার বাবার বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার দীঘেরকুল উত্তর বেন্নাবাড়ী গ্রামে। তিন ভাই এক বোনের মধ্যে সে ছিল দ্বিতীয়।

বহুতল ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু : মিরপুরের কালশী এলাকায় একটি বহুতল ভবনের সপ্তম তলা থেকে পড়ে মুরাদ হোসেন (২০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৮ আগস্ট) বিকালে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ক্যান্টনমেন্ট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামসুল হক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতের ভগ্নিপতি সেলিম জানান, দুর্ঘটনার পর সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল নেন। রাত সাড়ে ১০ টায় তার মৃত্যু হয়। মুরাদ হোসেন লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার বরোরচড় গ্রামের নুর আলমের ছেলে। এসআই শামসুল হক জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ