মঙ্গলবার ২৪ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান বিশ্বকাপ ম্যাচ তাজিকিস্তানের দুশানবে

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছ্ইা পর্বের গ্রুপিং হওয়ার পরই বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) মনোভাব ছিল আফগানিস্তানে খেলতে না যাওয়ার। বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে আফগানিস্তান হোম ম্যাচের ভেন্যু তাদের দেশে করলে আপত্তি জানাবে বাফুফে। ফিফা-এএফসিকে মৌখিকভাবে তা জানিয়েও দেয় বাফুফে।এরপর থেকেই আলোচনা, আগামী ১০ সেপ্টেম্বর বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচটি বাংলাদেশ কোথায় খেলবে? এ নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। আফগানিস্তান চাইছিল তাদের ভেন্যুতেই খেলাটি হোক।নিরাপত্তা জনিত কারনে ভেন্যু পরিবর্তনের দাবি উঠলে একবার শোনা যায় কাতারের দোহা, আরেকবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই,ইরানকে ভেন্যু করার ব্যাপারে ও আলোচনা হয়।অবশেষে ভেন্যু চূড়ান্ত হয়েছে।আফগানিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তাদের হোম ভেন্যু চূড়ান্ত করেছে তাজিকিস্তানের দুশানবেতে।

আগামী ১০ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তানের দুশানবেতে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের ম্যাচটি। গত রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাইয়ে নিরাপত্তা হুমকির কারণে নিজে দেশে ভেন্যু করতে পারেনি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি। সেবার আফগানিস্তান নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে ম্যাচ খেলেছিল ইরানে।উল্লেখ্য আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচটি দিয়েই বাংলাদেশ শুরু করবে কাতার-২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের মিশন। ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশের অন্য তিন প্রতিপক্ষ ভারত, ওমান এবং ২০২২ বিশ্বকাপ আয়োজক কাতার।বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে কাতারের বিরুদ্ধে ১০ অক্টোবর ঢাকায়, তৃতীয় ম্যাচ ভারতের বিরুদ্ধে কলকাতায়, চতুর্থ ম্যাচ ওমানের বিরুদ্ধে ১৪ নভেম্বর। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের হোম ম্যাচ আগামী বছর ২৬ মার্চ ঢাকায়। কাতারের বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচ ৩১ মার্চ, ভারতের বিরুদ্ধে হোম ম্যাচ ৪ জুন, ওমানের বিরুদ্ধে হোম ম্যাচ ৯ জুন।

এদিকে বাংলাদেশ দলের প্রস্তুতি এখনো শুরু হয়নি। প্রাথমিক ক্যাম্প কিছুদিন ঢাকায় হলেও মূলত কোচের আগ্রহ অনুযায়ি ক্যাম্পটি দেশের বাইরে আয়োজন করতে চায় বাফুফে।আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ সামনে রেখে বাফুফে জামাল ভুঁইয়াদের ১০ দিনের জন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্পটি হবে কাতারের দোহায়। আগামী ১ সেপ্টেম্বর ফুটবলারদের নিয়ে কাতার যাওয়ার কথা রয়েছে ইংলিশ কোচ জেমি ডে’র। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে বিদেশি কোনো জাতীয় দলের সঙ্গে অন্তত একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চান বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে। নিজের এ পরিকল্পনার কথা তিনি বাফুফেকে জানিয়েছেন।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ইরান প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে রাজী হলেও এতে সাড়া দেয়নি বাফুফে। কাতারের কন্ডিশনিং ক্যাম্প চলাকালীন সময়ে স্থানীয় একটি ক্লাবের সাথেই অনুশীলন ম্যাচ খেলবে জামাল ভ’ঁইয়ারা। বাফুফে এখন দলের প্রস্তুতির পরিকল্পনা নিয়েই চিন্তা করছে। কোচ জেমি ডে ছুটিতে আছেন। ঠিক কবে ফিরবেন তা বাফুফেকে এখনো জানাননি। জানা গেছে আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহে তিনি ঢাকায় ফিরতে পারেন।ছুটিতে যাবার আগেই অবশ্য ফুটবলার নির্বাচন করেছেন জেমি ডে। আগস্টের শেষ সপ্তাহে তিনি ছেলেদের নিয়ে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করবেন বলেও দেশ ত্যাগের আগে  জানিয়েছিলেন জেমী ডে। কাতার- ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ ‘ই’ গ্রুপে পড়েছে। আফগানিস্তান ছাড়াও প্রতিপক্ষ কাতার, ওমান ও ভারত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ