মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে মাবিয়াসহ তিন ভারোত্তোলক

স্পোর্টস রিপোর্টার: দেশসেরা নারী ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্তর জন্য ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ নতুন নয়। কোয়ালিফাই করে গত বছর নভেম্বরে তিনি অংশ নিয়েছেন তুর্কমেনিস্তানে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ভারোত্তোলন চ্যাম্পিয়নশিপে। বাংলাদেশের প্রথম ভারোত্তোলক হিসেবে মাবিয়ার এ অর্জন। এবার আরো দুই ভারোত্তোলক ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছেন। একজন শেখ নাইমুল ইসলাম, অন্যজন নারী ভারোত্তোলক স্মৃতি আক্তার। তিন ভারোত্তোলকই আছেন ডিসেম্বরে নেপালে অনুষ্ঠিতব্য সাউথ এশিয়ান গেমসের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ২২ ভারোত্তোলকের মধ্যে। চূড়ান্ত বাছাইয়ে তাদের টিকে থাকার দৌড়েও এগিয়ে তারা। সবচেয়ে ভালো খবর হলো, তিন ভারোত্তোলকের সামনেই ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে খেলার সুযোগ। তাও এসএ গেমসের আগে।আগামী ১৬ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর থাইল্যান্ডের পাতায়ায় হবে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের ২৮ তম আসরে। বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশন ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য তিন জনের নামই এন্ট্রি করেছেন।বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশনের সহসভাপতি উইং কমান্ডার (অব.) মহিউদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, ‘আমরা চেষ্টা করবো তিনজনকেই থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে পাঠাতে। এসএ গেমসের আগে এতবড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে।’ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে কোয়ালিফাইয়ের যোগ্যতা হলো বিভিন্ন ওজন শ্রেণীতে ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের  মানদন্ডের ভিত্তিতে পারফরম্যান্স। মেয়েদের ক্ষেত্রে নির্ধারিত ওই ওজন শ্রেণীর ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের ৬৫ ভাগ পারফরম্যান্স থাকতে হবে। আর ছেলেদের ক্ষেত্রে সেটা ৭৫ ভাগ।বাংলাদেশ থেকে প্রথম মাবিয়া গত বছর ওই যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন। এবার তার সঙ্গে যোগ হয়েছে স্মৃতি আক্তার ও শেখ নাইমুল ইসলাম। এসএ গেমসের জন্য মাবিয়া ৬৪ কেজি, স্মৃতি আক্তার ৪৫ কেজি এবং নাইমুল ইসলাম ৭৬ কেজি ওজন শ্রেণীতে অনুশীলন করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ