রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

কক্সবাজার তানযীমুল উম্মাহ হিফয মাদরাসা

কামাল হোসেন আজাদ, কক্সবাজার : শিক্ষা-সংস্কৃতি ও বিভিন্ন বিভাগে তানযীমুল উম্মাহ হিফয মাদরাসা কক্সবাজার শাখা জেলার সেরা প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্থান করে নিয়েছে। শুধুমাত্র কুরআনের হিফয শিক্ষা নয়, ইসলামী ও আধুনিক শিক্ষার চমৎকার সমন্বয় রয়েছে এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। একাধিক বিভাগে নতুনত্ব ও শৈল্পিক কার্যক্রম মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থাকে অনেকদূর এগিয়ে দিয়েছে। এমনই এক দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তানযীমুল উম্মাহ হিফয মাদরাসা।
দেশের অন্যতম প্রসিদ্ধ এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কক্সবাজারের শাখাটি হয়েছে মাত্র তিন বছর। এতো অল্প সময়ে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ‘সেরাদের সেরা’ হিসেবেও প্রতিভা বিকাশের অসংখ্য সাফল্যের স্বীকৃতি পেয়েছে এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।
বিশেষ করে, ২০১৮ সালে প্রকাশিত ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনীর ফলাফলে কক্সবাজার তানযীমুল উম্মাহ হিফয মাদরাসা চমক দেখিয়েছে। এ মাদরাসা থেকে ২৮ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। সেখান থেকে ১৩ জন জিপিএ-৫, ১৩ জন ‘এ’ এবং ২ জন ‘এ মাইনাস’ গ্রেডে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়েছে। যার পাসের হার শতভাগ। হিফয শিক্ষার পাশাপাশি সাধারণ শিক্ষায় এগিয়ে থাকা দেশের শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান তানযীমুল উম্মাহ কক্সবাজার শাখার এই ফলাফল জেলার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে বলে মনে করেন সচেতন অভিভাবক মহল।
মাদরাসার অধ্যক্ষ হাফেজ রিয়াদ হায়দার কৃতিত্বপূর্ণ ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। একইভাবে তিনি সকল শিক্ষক, অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। সফলতার ধারা অব্যাহত রাখতে সকলের আন্তরিক পরামর্শ ও সহযোগিতা কামনা করেছেন অধ্যক্ষ রিয়াদ হায়দার। অভাবনীয় সাফল্যের জন্য শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরাও মাদরাসা কর্তৃপক্ষের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।
এদিকে পর্যটন রাজধানী কক্সবাজার শহরের খুরুশকুল রাস্তার মাথায় বহুতল ভবনে তানযীমুল উম্মাহ হিফয মাদরাসা কক্সবাজার শাখা ২০১৬ সালে যাত্রা করে। মাদরাসা ক্যাম্পাসে শতভাগ অভিভাবকত্বসহ আবাসিক সুবিধা রয়েছে। পাঠদানে রয়েছে ৩৩ জন শিক্ষক। প্লে থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত আবাসিক ও অনাবাসিক মিলে বর্তমানে আড়াই শতাধিক শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। অভিভাবকদের ব্যাপক সাড়া ও দাবির প্রেক্ষিতে চলতি বছরের নতুন শিক্ষাবর্ষের শুরুতে মাদরাসার কক্সবাজার শাখায় পৃথক মহিলা বিভাগেও ছাত্রী ভর্তি কার্যক্রম চালু করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ