মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নাভারন রেল বাজারে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করেছে রেল কর্তৃপক্ষ

শার্শা (যশোর) সংবাদদাতাঃ- যশোরের নাভারন রেল বাজারে রেলের জমিতে স্থাপিত প্রায় শতাধিক দোকান ঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। যে কারণে অসহায় হয়ে পড়েছে কয়েকশ ব্যবসায়ী। কর্ম হারিয়েছে কয়েকশ কর্মচারী। বিগত বৃটিশ আমল থেকে নাভারন রেল বাজারের নাভারন স্টেশন মুখি দুই পাশে গড়ে উঠেছিল কয়েকশ দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।  মঙ্গরবার সকাল থেকে ডিভিশনাল স্টেট অফিসার ও প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ ইউনুছ আলীর নেতৃত্বে প্রায় ১৫টি বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের একটি প্রতিনিধি দল বুলডোজার দিয়ে  রেলের জমিতে নির্মিত দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করেন। এ সময় স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।  সূত্রে জানাগেছে, অনেক দিন ধরে বাংলাদেশ  রেল ওয়ের  পক্ষ থেকে রেলের জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য দখলদারীদের কাছে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। অতঃপর গত সপ্তাহে মায়কিং করে ১৫ জুলাই পর্যন্ত সময় বেধেদেয় রেলওয়ে কতৃপক্ষ। এরপর সরকারি নির্দেশ অমান্য করায় মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বুলডোজার দিয়ে রেল কর্তৃপক্ষ অবৈধ্য স্থাপনা উচ্ছেদ করে তাদের জমি দখল করে নেয়। এ ব্যাপারেল বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, আমরা ঘর ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করি। এখন আমরা কোথায় যাবো। এ ব্যাপারে একজন ঘরের মালিক জানান, বাপ দাদার আমল থেকে ডিসিআর কেটে রেল বাজারে ব্যবসা করে আসছি। সব কাগজ পত্র থাকা সত্বেও রেল কতৃপক্ষ ঘর ভেঙ্গে দিয়েছে।  এ সময় হাজার হাজার উৎসুক জনতা রেল স্টেশন রোডের দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠিান ভাংচুর দেখতে জড়ো হয়। এ সময় শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান ও শার্শা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ঘটনা স্থলে আসেন এবং পরিদর্শন করেন। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ