বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

উত্তরাঞ্চলের ১০ জেলায় চামড়া বাজার মন্দা ব্যবসায়ীরা হতাশ

কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: দেশের উত্তরাঞ্চলের ১০ টি জেলায় কাঁচা চামড়ার বাজারে ব্যাপকভাবে মন্দা দেখা দিয়েছে। এ অঞ্চলের সিরাজগঞ্জ, পাবনা, রাজশাহী, নাটোর বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, পঞ্চগড়, ও ঠাকুরগাঁও জেলায় প্রতিদিন যে বিপুল পরিমাণ গরু, মহিষ ও ছাগল এর চামড়ার মজুদ হয় সে অনুপাতে ক্রেতা নেই। অনেক ব্যবসায়ী ক্রয় কৃত চামড়া সময় মতো বিক্রি করতে পারছে না।এর ফলে প্রচুর পরিমাণ কাঁচা চামড়া ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে গুণগত মানের অবনতি ঘটছে। আর এ কারণে  ক্ষুদ্র  চামড়া ব্যবসায়ীরা উৎসাহ  হারিয়ে ফেলেছে। চামড়া ব্যবসায়ী মো: জনাব আলী সাথে আলাপ করে জানা গেছে গত বছর প্রকার ভেদে প্রতিটি গরুর চামড়া ১ হাজার থেকে ১২ টাকা। আর বর্তমানে প্রতিটি গরুর চামড়া ২ শত ৫০ টাকা থেকে ৫০০ শত টাকায় বিক্রি হচ্ছে, মহিষের চামড়ার মূল্য ছিল ৭ শত থেকে ৮ শত টাকা, বর্তমানে তা ৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ছাগলের চামড়া ছিল ৮০ টাকা, বর্তমানে তা বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা দরে। ভেড়ার চামড়ার মূল্য ছিল ৩০ টাকা বর্তমানে ১০ টাকায়। গতবছর গান্ধাইল গ্রামের চামড়া ব্যবসায়ী সেলিম ঢাকা ট্যানারি মালিকদের নিকট থেকে ১৮ লাখ টাকা বেল্লাল হোসেন পাবে ২৫ লাখ টাকা, আবু তালেব পাবে ৭০ লাখ টাকা, আ: হামিদ পাবে ৭০ লাখ টাকা, বিসা পাবে ৪০লাখ হবিবুর পাবে ২৫ লাখ টাকা, চান মিয়া পাবে ৩৫ লাখ টাকা, এইসব টাকা না পাওয়ায় অত্র এলাকার চামড়ার ব্যবসায়ীরা চামড়া কিনতে পারছেন না। বর্তমান চামড়ার দাম দিন দিন কমে যাওয়ায় ক্ষুদ্র চামড়া ব্যবসায়ীরা নগদ দামে চামড়া কিনে তারা লবণ মাখানোর পর বড় মহাজনের কাছে সরবরাহ করে ও দাম পাচ্ছে না। ফলে তারা টাকার অভাবে কষাইদের কাছ থেকে চামড়া কিনতে পারছে না। যারা কিনছে তারা সংরক্ষণের অভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। বর্তমানে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সরকারি- বেসরকারি উদ্যোগে ট্যানারী স্থাপন জরুরি হয়ে পড়েছে বলে অভিজ্ঞমহল মনে করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ