শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত-দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো ঈমানী ও নৈতিক দায়িত্ব -বাংলাদেশ মসজিদ মিশন

বাংলাদেশ মসজিদ মিশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা যাইনুল আবেদীন ও সেক্রেটারি জেনারেল ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য জরুরি ভিত্তিতে পর্যাপ্ত ত্রাণ-সামগ্রী পাঠানো প্রয়োজন। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল, অব্যাহত ভারি বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঘর-বাড়ী ও ফসলের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। বন্যায় ধানসহ বিভিন্ন ফসল ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গবাদী পশু, মাছ, হাস মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় বনী আদম নিঃস্ব হতে চলেছে। এমতাবস্থায় তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের ঈমানী ও নৈতিক দায়িত্ব।
গতকাল মঙ্গলবার দেয়া যৌথ বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, বন্যা দুর্গত, সহায়-সম্বলহীন, সর্বশান্ত কৃষকদের সহযোগিতায় সামার্থ অনুযায়ী সকলকেই সহযোগিতার হাত বাড়ানোর অনুরোধ করছি। আমরা কি আত্ম-মানবতায় এগিয়ে আসবো না। মহানবী (সা.) বলেছেন : “যিনি মানব কল্যাণে কাজ করেন তিনিই সর্বোত্তম ব্যক্তি।” আল হাদীস।
তাই আসুন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সহায়-সম্বলহীন দুর্গতদের জন্য জরুরী ভিত্তিতে খাদ্য, বস্ত্র, বিশুদ্ধ পানি, ঔষধ, চিকিৎসা সামগ্রী, কৃষকদের আর্থিক সহযোগিতা ও সুদ বিহীন ঋণ দেওয়ার কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ করি। মসজিদ মিশনের জেলা ও সর্বস্তরের দায়িত্বশীল ও ইমামগণকে স্ব-স্ব এলাকায় বিত্তবানদের থেকে ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করে দুর্গতদের মাঝে তা বন্টনের ব্যবস্থা করার অনুরোধ করছি।
নেতৃদ্বয় সমাজের বিত্তবানদের প্রতি মসজিদ মিশনের ত্রাণ তহবিলে সাধ্যমত দান করার বিশেষ অনুরোধ করেন। ত্রাণ-সামগ্রী পাঠানোর ঠিকানা : [বাংলাদেশ মসজিদ মিশন, কেন্দ্রীয় মসজিদ, কাটাবন, ঢাকা-১০০০। সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর- ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এম.এস.এ-৮৫/৩, এলিফ্যান্ট রোড শাখা, ঢাকা] প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ