শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

হেক্টর প্রতি মাছ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ১৫শ’ কেজি ২০ জনের প্রতিটি দলের আওতায় খালে মাছ চাষ

খুলনা অফিস : খুলনায় মিষ্টি পানির আধার ও মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২৫টি খাল খনন করা হয়েছে। বছরের পর বছর ধরে এসব খাল ভরাট হয়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে ছিল। এরই মধ্যে চারপাশের মানুষরা খালে মাছ চাষের উদ্যোগ নিয়েছেন।
মৎস্য কর্মকর্তারা বলছেন, খাল খননের পর হেক্টর প্রতি ২০ জনের একটি দল করা হয়েছে। বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় তাদেরকে পোনা সরবরাহ করা হবে। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে মাছের দ্বিগুণ উৎপাদনের পাশাপাশি খালগুলো পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সহায়ক হবে।
সরেজমিনে খুলনার ডুমুরিয়া ও দাকোপ উপজেলায় মৎস্য কর্মকর্তা ও উপকারভোগীদের সাথে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় খুলনার তেরখাদা মাটিকাটা খাল, রূপসার স্বল্প বাহিরদিয়া পদ্মবিল ও ডুমুরিয়ার ভেলকামারী বিলের ভরাট হওয়া খালসহ ২৫টি খাল খনন করা হয়েছে।
খুলনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আবু ছাঈদ জানান, খালগুলো পুনঃখনন করায় সহজেই আশপাশে বসবাসকারী হতদরিদ্ররা মাছ চাষ করে নিজেদের জীবনমান পরিবর্তন করতে সক্ষম হবেন। এর পাশাপাশি আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তিনি বলেন, বর্তমানে খুলনা জেলায় উন্মুক্ত খাল ও সংযুক্ত বিলগুলোতে বর্তমানে হেক্টর প্রতি ৭শ’ কেজি দেশি মাছ উৎপাদন হয়। খাল খননের পর দলভিত্তিক মাছ চাষে হেক্টর প্রতি উৎপাদন প্রায় দ্বিগুণ হবে।
এদিকে খালে মিষ্টি পানির সরবরাহ থাকায় তা ফসল উৎপাদনেও কাজে লাগবে।
খুলনার তেরখাদা আজগড়া গ্রামের চাষি আকরাম শেখ জানান, উপজেলার মাটিকাটা খালটি দীর্ঘদিন ভরাট অবস্থায় ছিল। যে কারণে এই খালের চারপাশে উচ্চফলনশীল ধানের চাষ হতো না। তবে এবার খাল খননের ফলে মাছ চাষের পাশাপাশি ধান ও রবিশস্যের আবাদ করা যাবে। এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে দখল হওয়া পুকুর-জলাশয় উদ্ধার করে সেগুলোকে মাছ চাষের উপযোগী করার দাবি জানিয়েছেন প্রান্তিক চাষিরা।
খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ন চন্দ্র চন্দ ও সাবেক মৎস্যমন্ত্রী বলেন, খুলনার বিভিন্ন অঞ্চলে মাছ চাষের অনুকূল পরিবেশ তৈরিতে সরকার কাজ করছে। তারই অংশ হিসেবে খাল খনন করা হয়েছে। মৎস্য কর্মকর্তাদের পাশাপাশি সুবিধাভোগীরা সম্পৃক্ত থেকে খাল খননে কাজ করেছেন। এতে মাছ চাষের মাধ্যমে প্রান্তিক কৃষকরা লাভবান হবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ