বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলায় আইনজীবী সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে -ড. রেজাউল করিম

গতকাল শনিবার রাজধানীর ঢাকা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে সেন্টার ফর প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট (সিপিএসডি)-এর উদ্যোগে প্রশিক্ষণ কর্মশালা-২০১৯ এ প্রধান অতিথি ছিলেন সাপ্তাহিক সোনার বাংলার সহকারী সম্পাদক ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম

সাপ্তাহিক সোনার বাংলার সহকারী সম্পাদক ড. মুহা. রেজাউল করিম বলেছেন, আইনজীবী সমাজ জাতির জাগ্রত বিবেক। মহান মুক্তিযুদ্ধসহ দেশের যেকোন ক্রান্তিকালে আইনজীবীরা ঐতিহাসিক  ভূমিকা পালন করেছেন। তাই দেশ ও জাতির কল্যাণে আইনজীবী সমাজের ভূমিকা জাতি চিরদিনই গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে। তিনি দেশের চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলায় দেশের আইনজীবী সমাজকে আবারও ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।
গতকাল শনিবার রাজধানীর ঢাকা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে সেন্টার ফর প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট (সিপিএসডি) আয়োজিত বিজ্ঞ আইনজীবীদের দক্ষতা বৃদ্ধি ‘প্রশিক্ষণ কর্মশালা-২০১৯’ এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ সম্পাদক এডভোকেট মঈন উদ্দিনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন টিভি ব্যক্তিত্ব ড. মাওলানা মতিউল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ সভাপতি এডভোকেট আব্দুস সালাম রেজা, ঢাকা মহানগরী উত্তরের আইনজীবী বিভাগের সেক্রেটারি এডভোকেট রোকন রেজা শেখ, এডভোকেট শরীফ উদ্দীন খন্দকার, এডভোকেট শাহীন আক্তার, এডভোকেট মীর নূরুন্নবী উজ্জল, এডভোকেট বেলায়েত হোসেন সুজা, এডভোকেট গোলাম কিবরিয়া ও এডভোকেট তাজ উদ্দীন প্রমুখ।
ড. এম আর করিম বলেন, আইন পেশা একটি সেবামূলক কাজ। দেশের চলমান রাজনৈতিক রাজনৈতিক সঙ্কট চলাকালে আইনজীবীরা বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের শুধু আইনী সহায়তায় দেননি বরং রাজপথে তারাও সোচ্চার ভূমিকা পালন করেছেন। এজন্য অনেকে সরকারের সীমাহীন জুলুম-নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। অনেককে কারাবরণও করতে হয়েছে। কিন্তু তারা অন্যায় ও অসত্যের কাছে কখনো আত্মসমর্পন করেন নি বরং সরকারের প্রতিহিংসার শিকার বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের সর্বাত্মক আইনী সহায়তা দিয়ে গেছেন এবং এখনো তা অব্যাহত রয়েছে। দেশ ও জাতির কল্যাণ আইনজীবী সমাজের মহতি কাজ আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
তিনি বলেন, যেহেতু আইন পেশা একটি অতিসম্মানজনক ও সেবামূলক পেশা। তাই কর্মের ক্ষেত্রে পেশাদারী মনোভাব, দক্ষতা বৃদ্ধি ও সেবার মান বৃদ্ধির জন্য আইনজীবী সমাজকে অধ্যবসায়ের পরিসর বাড়াতে হবে। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক আইনের সাথে অধিক পরিচিতি হওয়ার জন্য আইনবিষয়ক গ্রন্থাদি সংগ্রহ ও নিয়োমিত পাঠ অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। পেশাগত উৎকর্ষতা বৃদ্ধির জন্য মাতৃভাষা ও আন্তর্জাতিক ভাষা হিসেবে ইংরেজী ভাষায় দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে। কারণ, এখনও আইন বিষয়ক সকল গ্রন্থাদি বাংলা ভাষায় অনুবাদ হয়নি। দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য নিজেদের মধ্যে মতবিনিয়ম, সিনিয়র ও বিজ্ঞ আইনজীবীদের সাথে পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধি, নিয়মিত প্রশিক্ষণ ও কর্মশালায় অংশ নিতে হবে। তিনি আইনজীবীদের সেবার মানসিকতায় দেশ ও জাতির কল্যাণে এগিয়ে আসার আহবান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ