রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১
Online Edition

জাহাজ থেকে ৪৩ কনটেইনার সাগরে

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ঢাকার পানগাঁও টার্মিনালে যাবার পথে একটি জাহাজ থেকে ৪৩টি কনটেইনার সাগরে পড়ে গেছে। রোববার ভোর ৬টার দিকে বন্দর সীমানার বাইরে বঙ্গোপসাগরের হাতিয়া চ্যানেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে কনটেইনারগুলো কী বহন করছিল তা এখনো জানা যায়নি। চট্টগ্রাম বন্দরের সদস্য (প্রশাসন) জাফর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করিম গ্রুপের মালিকানাধীন করিম শিপিং লাইনসের ‘  কেএসএল গ্ল্যাডিয়েটর’ নামে একটি কনটেইনারবাহী জাহাজ শনিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ঢাকার বুড়িগঙ্গায় পানগাঁও টার্মিনালের উদ্দেশে রওনা দেয়। জাহাজটিতে কনটেইনার ছিল মোট ৮৬টি। এর মধ্যে ৬৭টি কনটেইনার পানগাঁও সংলগ্ন সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেডের জেটিতে এবং বাকি ১৯ টি পানগাঁওতে খালাসের কথা ছিল। কিন্তু জাহাজটি বঙ্গোপসাগরে হাতিয়া চ্যানেলে পৌঁছার পর ৪৩টি কনটেইনার সাগরে পড়ে যায়।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, হাতিয়া চ্যানেলের অদূরে নোয়াখালীর ভাসানচর এলাকায় লাল বইয়ার কাছে খারাপ আবহাওয়ার কবলে পড়ে জাহাজটি। এসময় জাহাজটি ব্যাপকভাবে দুলতে শুরু করে। এতে কনটেইনারগুলো বাঁধন ছিঁড়ে সাগরে পড়ে যায়। ভাসানচরে এখন অনেকগুলো কনটেইনার ভাসতে দেখা যাচ্ছে। এসব কনটেইনারগুলোকে নজরে রাখতে জাহাজটির কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে।
দুর্ঘটনার কারণে হাতিয়া চ্যানেল দিয়ে জাহাজ বা অন্যান্য নৌযান চলাচলে কোনো বাধা সৃষ্টি হচ্ছে না বলে জানান এই কর্মকর্তা। তবে তিনি জানান, এই চ্যানেল দিয়ে চলাচলে সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ