সোমবার ২৫ মে ২০২০
Online Edition

বেগম আফিফা আযমের দাফন সম্পন

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর ভাষা সৈনিক অধ্যাপক গোলাম আযমের স্ত্রী মরহুমা আফিফা আযমের নামাজে জানাযা গতকাল শনিবার রাতে কাজী অফিস লেনে অনুষ্ঠিত হয় -সংগ্রাম

 

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ ও ভাষা আন্দোলনের নেতা অধ্যাপক গোলাম আযমের সহধর্মিনী বেগম আফিফা আযমের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে মগবাজারস্থ কাজী অফিস লেনে নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। 

হাজার হাজার মানুষের অংশগ্রহনে নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন মরহুমার নাতি উসামা। নামাজে জানাযায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর অধ্যাপক মুজিবুর রহমান, অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, সেক্রেটারি জেনারেল ডা: শফিকুর রহমান, সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এএইচএম হামিদুর রহমান আযাদ, কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারি অধ্যাপক তাসনীম আলম, কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল, ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর সেলিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য মোবারক হোসেন, মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমীর মঞ্জুরুল ইসলাম ভূইয়া, সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ, সহকারী সেক্রেটারি এডভোকেট হেলাল উদ্দিন, উত্তরের নায়েবে আমীর আবদুর রহমান মুসা, সেক্রেটারি ড. রেজাউল করিম, সহকারী সেক্রেটারি লস্কর মোহাম্মদ তসলীম, শিবিরের সেক্রেটারি জেনারেল সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। 

আরো উপস্থিত ছিলেন ফরিদ হোসাইন, এডভোকেট এসএম কামাল উদ্দিন, এডভোকেট আবদুর রাজ্জাক, কামাল হোসেন, নাজিম উদ্দিন মোল্লা, ড. ফখরুদ্দিন মানিক, আদর্শ শিক্ষক পরিষদের জেনারেল সেক্রেটারি এবিএম ফজলুল করীম, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান, শিবিরের কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদক সালাউদ্দিন আইয়ুবী প্রমুখ। 

নামাজে জানাযা উপলক্ষে মগবাজারস্থ কাজী অফিস লেনে জনতার ঢল নামে। রাত ৯টার পর অনুষ্ঠিত নামাজে জানাযার সময় পুরো এলাকা ছিল লোকে লোকারন্য। নামাজে জানাযা শেষে কাজী অফিস লেন মসজিদ সংলগ্ন পারিবারিক কবর স্থানে মরহুমা আফিফা আযমকে দাফন করা হয়। 

উল্লেখ, গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টায় ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না-ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি ফুসফুসের সংক্রামণসহ নানা জটিল রোগে ভুগছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। তিনি ৬ পুত্র ও বহু নাতী-নাতনী এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গিয়েছেন। 

মরহুমার প্রথম পুত্র আব্দুল্লাহিল মামুন আল আযমী, দ্বিতীয় পুত্র আব্দুল্লাহিল আমিন আল আযমী, তৃতীয় পুত্র আব্দুল্লাহিল মোমেন আল আযমী, চতুর্থ পুত্র সাবেক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহিল আমান আল আযমী, পঞ্চম পুত্র আব্দুল্লাহিল নোমান আল আযমী, ষষ্ঠ পুত্র আব্দুল্লাহিল সালমান আল আযমী। তার ৪র্থ পুত্র সাবেক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহিল আমান আল আযমীকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয় দিয়ে ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে তার বাড়ী থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত তার কোন খবর পাওয়া যায়নি।

বেগম আফিফা আযমের জানাযায় চতুর্থ ছেলে সাবেক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহিল আমান আল আযামীকে হাজির করানোর জন্য গতকাল দেয়া এক বিবৃতিতে অনুরোধ জানান  বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমাদ বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তিনি আশা প্রকাশ করেন, মানবিক কারণে সরকার আব্দুল্লাহিল আমান আল আযামীকে তার মায়ের জানাযায় হাজির করার ব্যবস্থা করবেন। সরকার আন্তরিক হলে এটা সম্ভব বলে আমরা মনে করি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ