বুধবার ০৩ জুন ২০২০
Online Edition

রাজশাহীতে শুরু নৌ-পুলিশের কার্যক্রম শুরু

রাজশাহী অফিস : নদী পথে অপরাধ প্রতিরোধে রাজশাহী জেলায় প্রথমবারের মতো নৌ-পুলিশ তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে। এই বাহিনী রাজশাহীর গোদাগাড়ী থেকে চারঘাট পর্যন্ত বিস্তীর্ণ পদ্মা নদী এলাকায় প্রহরার দায়িত্ব পালন করবে।

রাজশাহী নগরীর কোর্ট এলাকার পশ্চিমে অবস্থিত বাশুড়ি এলাকায় রাজশাহী নৌ-পুলিশের কার্যালয় ভাড়া নেয়া হয়েছে। বুধবার থেকে ৭ জনের জনবল দিয়ে বর্তমানে রাজশাহীতে এই বাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। কার্যক্রম শুরুর প্রথম দিনই বুধবার রাতে পদ্মা চর এলাকায় নৌ-পুলিশ অভিযান চালিয়ে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ নিষিদ্ধ কারেন্টজাল উদ্ধার করে। রাজশাহী নৌ-পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জানান, ১ জন এসআই, ১ জন এএসআই ও ৫ জন কনস্টবল নিয়ে রাজশাহী জেলার বিস্তীর্ণ পদ্মা নদী এলাকায় নৌ-পুলিশের কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এরই মধ্যে গোদাগাড়িতেও একটি কার্যালয় ভাড়া করা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে সেখানেও ১ জন এসআই, ১ জন এএসআই ও ১ জন কনস্টবল নিযুক্ত করা হবে। এছাড়া চারঘাট এলাকাতেও প্রয়োজনীয় জনবলসহ একটি কার্যালয় স্থাপন করা হবে। বিস্তীর্ণ নদী পথে টহল দিতে এরই মধ্যে দুইটি নৌকা ভাড়া করা হয়েছে। সেই সঙ্গে নৌকা ও স্পিডবোটসহ প্রয়োজনীয় যানবাহনের জন্য আবেদন করা হয়ে। ওসি আরো জানান, নদীপথে সংঘটিত সব ধরণের অপরাধ প্রতিহত করতে নৌ-পুলিশ বদ্ধপরিকর। এদিকে কার্যক্রম শুরুর প্রথম দিনই নৌ-পুলিশের সদস্যরা চর খিদিরপুর এলাকায় পদ্মা নদীতে বুধবার রাতে অভিযান চালিয়েছে। এসময় ১ লাখ ৯ হাজার টাকার অবৈধ জাল জব্দ করে নিয়ম অনুসারে জালগুলো পুড়িয়ে নষ্ট করা হয়। এসময় অভিযানে নেতৃত্ব দেন পবা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মেহেদী মাসুদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন পবা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ