শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ভারতীয় বিএসএফ’র অনাকাক্সিক্ষত হত্যাকাণ্ড বন্ধ করুন -সুশীল ফোরাম

 

ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বি.এস.এফ কর্তৃক বাংলাদেশের সীমান্তে নিহতের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে সুশীল ফোরামের সভাপতি মোঃ জাহিদ এক বিবৃতিতে বলেন ভারতের সাথে পাকিস্তান ও চীনসহ আরো বেশ কয়েকটি দেশের স্থল ও নৌ সীমান্ত থাকলেও আর কোন রাষ্ট্রের নাগরিকরা বি.এস.এফ এর হাতে এমন হত্যা ও নির্যাতনের শিকার হওয়ার নজির নেই। ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীরা বাংলাদেশ ভারত সীমান্তকে বিশ্বের অন্যতম ভয়ংকর, রক্তক্ষয়ী ও প্রাণগাতি সীমান্ত হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। বি.এস.এফ এর হাতে হত্যা ও নির্যাতনে শিকার মানুষের সংখ্যা সাম্প্রতিক সময়ে উদ্বেগজনকহারে বেড়ে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া বিভাগের নির্বাহী পরিচালক ব্রার্ড অ্যাডামস বলেন ভারতের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী যেভাবে বাংলাদেশের দরিদ্র ও নিরস্ত্র গ্রাম বাসীদের উপর নিয়মিত গুলী চালাচ্ছে বিশে^র বৃহত্তর গণতান্ত্রিক রাষ্টের কাছে এমন আচরণ কাক্সিক্ষত নয়। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের দক্ষিণ এশিয়া বিভাগের পরিচালক মীনাক্ষি গাঙ্গুলি বলেন সীমান্তে মানুষের উপর অত্যাচার, বল প্রয়োগ ও নির্বিচারের প্রহার অসহনীয়। এসব নির্যাতনের ঘটনা ভারতের আইনের শাসনের প্রতি দায়-বদ্ধতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে। গত ১০ ই মে ৩২ বছর বয়সী কবিরুল মোল্লাকে বি.এস.এফ ধরে মুখ ও পায়ুপথে প্রেট্রোল ঢেলে নির্যাতন করে। তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। তাই সুশীল ফোরামের সভাপতি মোঃ জাহিদ বলেন বি.এস.এফ এর হত্যাকান্ড শূণ্যে নিয়ে আনার জন্য দুই দেশের সরকার প্রধান ও আন্তর্জাতিক মহলে হস্তক্ষেপ কামনা করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ